পুলিশ কনস্টেবল পারভেজ মিয়াকে ইয়ামাহা স্যালুটো মোটরসাইকেল উপহার দিল এসিআই মটরস

১৬ জুলাই, ২০১৭ তারিখে পুলিশ কনস্টেবল জনাব মোহাম্মদ পারভেজ মিয়াকে তার সাহসিকতার সম্মাননা স্মরূপ এসিআই মটরস এর পক্ষ থেকে একটি ইয়ামাহা স্যালুটো ১২৫ সি সি মোটরসাইকেল উপহার দেয়া হয়। Yamaha Saluto এর ভিডিও রিভিউ দেখতে এখানে ক্লিক করুন https://www.youtube.com/watch?v=zHgBeuMbgFE গত ৭ জুলাই, ২০১৭ তারিখে মতলব এক্সপ্রেস একটি যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে গৌরীপুর ফুটওভার ব্রীজের নিচে নর্দমায় ৩৫-৪০ জন যাত্রী সহ নিমজ্জিত হলে কর্মরত কনস্টেবল পারভেজ মিয়া ডোবার পচা দুর্গন্ধযুক্ত পানিতে জীবন বাজি রেখে অর্ধ ডুবন্ত বাসের জানালার কাচ ভেঙ্গে যাত্রীদের উদ্ধার করেন । ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দাউদকান্দির গৌরীপুরে অর্ধশত যাত্রী নিয়ে একটি বাস ডোবায় পড়ে যায়। দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার কনস্টেবল…

Review Overview

User Rating: 3.4 ( 3 votes)

১৬ জুলাই, ২০১৭ তারিখে পুলিশ কনস্টেবল জনাব মোহাম্মদ পারভেজ মিয়াকে তার সাহসিকতার সম্মাননা স্মরূপ এসিআই মটরস এর পক্ষ থেকে একটি ইয়ামাহা স্যালুটো ১২৫ সি সি মোটরসাইকেল উপহার দেয়া হয়।

yamaha saluto 125 review

Yamaha Saluto এর ভিডিও রিভিউ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

গত ৭ জুলাই, ২০১৭ তারিখে মতলব এক্সপ্রেস একটি যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে গৌরীপুর ফুটওভার ব্রীজের নিচে নর্দমায় ৩৫-৪০ জন যাত্রী সহ নিমজ্জিত হলে কর্মরত কনস্টেবল পারভেজ মিয়া ডোবার পচা দুর্গন্ধযুক্ত পানিতে জীবন বাজি রেখে অর্ধ ডুবন্ত বাসের জানালার কাচ ভেঙ্গে যাত্রীদের উদ্ধার করেন ।

bangladesh police activity

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দাউদকান্দির গৌরীপুরে অর্ধশত যাত্রী নিয়ে একটি বাস ডোবায় পড়ে যায়। দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার কনস্টেবল পারভেজ মিয়া তখন রাস্তায় ট্রাফিক সামলাতে ব্যস্ত। অবস্থার ভয়াবহতা ভেবে নিজের জীবনের কথা চিন্তা না করেই পুলিশের এই ভারী ভারী পোশাক নিয়েই পচা ও গন্ধযুক্ত ময়লা ডোবার পানিতে লাফিয়ে পড়েন পারভেজ।

একে একে গাড়ির জানালার গ্লাস গুলো ভেঙ্গে দেন যেন সহজে গাড়ির যাত্রীরা বেরিয়ে আসতে পারে। এরপর নিজেই চলে যান গাড়ির ভেতর। ডুব দিয়ে বের করে আনেন ৭ মাসের এক শিশুকে। গাড়ির ভেতর আটকে পড়া ৫ নারীসহ ১০/১২ জন যাত্রীকে উদ্ধার করেন।

স্থানীয় জনগণও তাঁকে উদ্ধার কাজে সহযোগিতা করে। দূর্ঘটনায় অনেকে আহত হলেও কেউ মারা যায়নি। পুলিশের চাকরিতে কনস্টেবল পোস্টটা অনেক ছোট্ট। কিন্তু ছোট্ট চাকরির ছোট্ট সুবিধায় আটকে থাকেননি তিনি। প্রমাণ করেছেন অনেক পুলিশ আসলেই জনগণের বন্ধু।

police in bangladesh

পারভেজ মিয়ার মানবতা এবং সাহসিকতাকে সম্মান জানিয়ে বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টার এ  আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জনাব শহিদুল হক,  আই জি ; জনাব মোখলেসুর রহমান, অতিরিক্ত আই জি(প্রশাসন);  জনাব আতিকুর রহমান, ডি আই জি (হাইওয়ে); জনাব এ কে এম হাফিজ আক্তার, অতিরিক্ত ডি আই জি(ট্রান্সপোর্ট)।

এই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জনাব সুব্রত রঞ্জন দাস,চীফ বিজনেস অফিসার, এসিআই মটরস

এসিআই মটরস

এটা আসলেই অসাধারন এক প্রশংসনীয় উদ্যেগ। এসিআই মটরস আসলেই এক অসাধারন নিদর্শন স্থাপন করলো। ভালো কাজের পুরষ্কার পেলে সকলেই ভালো কাজে উতসাহী হবে, এবং এছাড়াও পুলিশ কনস্টেবল পারভেজ মিয়ার মতো মানুষদের নিকট কৃতজ্ঞতা স্থাপন করা হবে। আমাদের এই সমাজে পারভেজ মিয়ার মতো রিয়েল লাইফ হিরোদের আসলেই অনেক প্রয়োজন।

About আহমেদ স্বজন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!