কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল অফিশিয়ালি আসছে বাংলাদেশে!!

গত ৮ মাসে বাংলাদেশে বাইক বিক্রির সংখ্যা বেড়েছে, আর এক নতুন জাপানী বাইক কোম্পানি খুব দ্রুত বাংলাদেশে আসবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। অফিশিয়ালি কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল খুব শীঘ্রই বাংলাদেশে আসছে! জাপানী বাইক কোম্পানি হোন্ডা, সুজুকি এবং ইয়ামাহা এর পরে কাওয়াসাকি সর্বশেষ জাপানি বাইক কোম্পানি হিসেবে বাংলাদেশে অফিশিয়ালি প্রবেশ করবে। পুরো বিশ্বজুর কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল স্পোর্টস বাইক সেগমেন্ট এ অন্যতম নাম। মূলত কাওয়াসাকি হাইরেঞ্জ এর বাইক তৈরি করে থাকে হোন্ডার বিপরীতে, যদিও হোন্ডা বর্তমানে কমিউটিং বাইক তৈরিতে বেশি নজর দিয়েছে। কাওয়াসিয়াকি হেভি ইন্ডাস্ট্রি এর সাবসিডারি হচ্ছে কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল। মিস্টার কাওয়াসাকি এটি প্রতিষ্ঠিতা করেন ৫ অক্টোবর ১৮৯৬ সালে। এর প্রধান কার্যালয় হচ্ছে কোব, জাপান। শুধু…

Review Overview

User Rating: 2.75 ( 1 votes)

গত ৮ মাসে বাংলাদেশে বাইক বিক্রির সংখ্যা বেড়েছে, আর এক নতুন জাপানী বাইক কোম্পানি খুব দ্রুত বাংলাদেশে আসবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। অফিশিয়ালি কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল খুব শীঘ্রই বাংলাদেশে আসছে! জাপানী বাইক কোম্পানি হোন্ডা, সুজুকি এবং ইয়ামাহা এর পরে কাওয়াসাকি সর্বশেষ জাপানি বাইক কোম্পানি হিসেবে বাংলাদেশে অফিশিয়ালি প্রবেশ করবে।

কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল

পুরো বিশ্বজুর কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল স্পোর্টস বাইক সেগমেন্ট এ অন্যতম নাম। মূলত কাওয়াসাকি হাইরেঞ্জ এর বাইক তৈরি করে থাকে হোন্ডার বিপরীতে, যদিও হোন্ডা বর্তমানে কমিউটিং বাইক তৈরিতে বেশি নজর দিয়েছে। কাওয়াসিয়াকি হেভি ইন্ডাস্ট্রি এর সাবসিডারি হচ্ছে কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল। মিস্টার কাওয়াসাকি এটি প্রতিষ্ঠিতা করেন ৫ অক্টোবর ১৮৯৬ সালে। এর প্রধান কার্যালয় হচ্ছে কোব, জাপান।

শুধু মোটরসাইকেল নয়, তারা এয়ারক্রাফটস, স্পেস সিস্টেম, হেলিকপ্টারস, সিম্যুলেটর, জেট ইঞ্জিন, মিসাইল এবং ইলেকট্রনিক্স এগুলো তৈরি করে থাকে।  মোটরসাইকেল ফার্ম বেশি বড় নয়, তবে তারা সারা বিশ্বে তাদের মোটরবাইক এর জন্য সুপরিচিত।

kawasaki motorcycle price in bangladesh

কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল এর জনপ্রিয় বাইকগুলো হচ্ছে কাওয়াসাকি নিনজা ২৫০, ৬৫০, ১০০০, জেডেক্স১৮ এবং যার কথা না বললেই নয় এইচ২কাওয়াসাকি এইচ২ সবচেয়ে শক্তিশালী এবং দ্রুত গতি সম্পন্ন বাইক। যার ইঞ্জিন ১০০০সিসি এবং বাইকটি ২০৭বিএইচপি পর্যন্ত ক্ষমতা উৎপন্ন করতে সক্ষম।

যদিও দেখা যাচ্ছে যে, কাওয়াসাকির দ্রুত গতি সম্পন্ন যে বাইক গুলো রয়েছে তা সিসি লিমিটেশন এর কারনে বাংলাদেশে আসবে না যার মধ্যে উল্লেখ যোগ্য হচ্ছে জেড২৫০ এবং নিনজা২৫০। তবে কাওয়াসাকি জেড১২৫ বাইকটি বাংলাদেশের বাজারে আনেব। যদিও এটি একটি পকেট বাইক।

kawasaki z125 price in bangladesh

আমি মনে করছি যে, কাওয়াসাকি তাদের কেএলএক্স ও ডি ট্রেকার সিরিজ নিয়ে আসবে। তবে সিরিজ দুটি দুটি উদ্দেশ্য তৈরি করা। অফ রোড এবং অন রোড দুই জায়াগতেই এই বাইক নিয়ে রাইড করা যায়। বাইক গুলোর ইঞ্জিন ও ১১০-১৫০ সিসি, যা সিসি লিমিট এর মধ্যে পরে।

সম্প্রতি কাওয়াসাকি ইন্ডিয়াতে তাদের যাত্রা শুরু করেছে। কারণ ইন্ডিয়াতে জাপানে তৈরি বাইকের অনেক জনপ্রিয়তা। জাপানী কোম্পানী ইন্ডিয়ার জন্য আলাদাভাবে বাইক তৈরি করে থাকে। তাই এটা আশা করা যায় যে ইন্ডিয়াতে যে বাইক আসবে তা বাংলাদেশেও আসবে।

kawasaki klx price in bangladesh

এখনো জানা যায়নি কারা অফিসিয়ালি কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল বাংলাদেশে নিয়ে আসবে। যদিও অতীতে কিছু আমদানীকারক কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল আমদানী করেছিলো,  কিন্তু তারা অফিসিয়াল ডিস্ট্রিবিউটর নয়। তবে এবার একটি মোটর সাইকেল কোম্পানি অফিসিয়ালি কাওয়াসাকি বাংলাদেশ এ আনতে চাচ্ছে। আমরা এখনও শিওর নই যে তারা কবে নাগাদ অফিসিয়ালি লঞ্চ করবে। তবে মনে হচ্ছে ২০১৮ এর আগে নয়।

kawasaki ninja h2r price in bangladesh

৪টি জাপানী বাইকের মধ্যে কাওয়াসাকি অন্যতম। তাছাড়া ওয়ার্ল্ড সুপার বাইক চ্যাম্পিয়ন টিম ও তারা। কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল খুব শীঘ্রই বাংলাদেশে আসছে। ২০১৯ সালে আমাদের জন্য কি নিয়ে আসবে কাওয়াসাকি!!!

About আহমেদ স্বজন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!