টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ লঞ্চ হলো বাংলাদেশে

টিভিএস বাংলাদেশে অফিশিয়ালি টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ বাংলাদেশে লঞ্চ করা হলো। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেন্টার এ শুরু করার অনুষ্ঠানটি চালু হয়। অনুষ্ঠানে টিভিএস অটো বাংলাদেশ এন্ড বাইক বিডি এর উচ্চ শ্রেনীর কর্মকর্তারা অংশগ্রহন করেন। >> Click To See The Launching Video Of TVS Apache RTR 160 << https://www.youtube.com/watch?v=8X2iiwvggeA অনুষ্ঠানটি শুরু করেছিলেন মি. ইকরাম হোসেন। অনুষ্ঠান এ আর ও উপস্থিত ছিলেন মি. বিপ্লব কুমার রয়(সিএও), বিসনেস হেড মি. ম্রিগেন ব্যানার্জী। এপ্যাচি আরটিআর বাংলাদেশের দ্বিতীয়  ১৫০সিসি মোটরসাইকেল যেটি বাজাজ পালসার ১৫০(ডিটিএসআই) এর পরে সব বেশি বিক্রি হয়েছে। তথ্যনুযায়ী বাংলাদেশের রাস্তাই প্রায় ১৫০,০০০ ইউনিট এর আরটিআর রয়েছে। বাইকটি সবথেকে বেশি জনপ্রিয় পেয়েছে এটির আক্রমনাত্মক…

Review Overview

User Rating: 1.35 ( 1 votes)

টিভিএস বাংলাদেশে অফিশিয়ালি টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ বাংলাদেশে লঞ্চ করা হলো। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেন্টার এ শুরু করার অনুষ্ঠানটি চালু হয়। অনুষ্ঠানে টিভিএস অটো বাংলাদেশ এন্ড বাইক বিডি এর উচ্চ শ্রেনীর কর্মকর্তারা অংশগ্রহন করেন।

>> Click To See The Launching Video Of TVS Apache RTR 160 <<

অনুষ্ঠানটি শুরু করেছিলেন মি. ইকরাম হোসেন। অনুষ্ঠান এ আর ও উপস্থিত ছিলেন মি. বিপ্লব কুমার রয়(সিএও), বিসনেস হেড মি. ম্রিগেন ব্যানার্জী।

টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ tvs apache rtr160 launch in bangladesh

এপ্যাচি আরটিআর বাংলাদেশের দ্বিতীয়  ১৫০সিসি মোটরসাইকেল যেটি বাজাজ পালসার ১৫০(ডিটিএসআই) এর পরে সব বেশি বিক্রি হয়েছে। তথ্যনুযায়ী বাংলাদেশের রাস্তাই প্রায় ১৫০,০০০ ইউনিট এর আরটিআর রয়েছে। বাইকটি সবথেকে বেশি জনপ্রিয় পেয়েছে এটির আক্রমনাত্মক লুকস ও স্টাইল, গতি এবং সবথেকে বেশি জনপ্রিয় হয়েছে এটির মাইলেজ এর জন্য যা বাজারে ১৫০সিসি মডেলের মোটরসাইকেল এ খুব কম।

যারা নতুন এই টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ এর  ইঞ্জিন সমর্পকে কিছুটা সন্দেহ আছে তাদের আমরা দুইটা বাইক এর ভিতরে পার্থক্য এর বিষয়ে কিছু আইডিয়া দেব। এপ্যাচি আরটিআর ১৫০ এর ইঞ্জিন কিছুটা স্কয়ার যেখানে এদের বোর আর স্ট্রোক একই রকম। কিন্তু নতুন এপ্যাচি আরটিআর ১৬০ ইঞ্জিন এ বোর এর সাইজ বড়। আরটিআর ১৫০ সিলিন্ডার এর আকার অনেকটা স্কয়ার আকারের হয় কিন্তু অন্যদিকে আরটিআর ১৬০ এর ইঞ্জিন ওভার স্কোয়ার।

tvs apache rtr 160 in bangladesh

ফ্রেম ডিজাইন এর দিক দিয়ে এপাচি আরটিআর ১৬০ আর এপ্যাচি আরটিআর ১৫০ একই রকম। মূল পার্থক্যটি হল  ইঞ্জিন এ। এখনকার নতুন ইঞ্জিন এর ক্ষমতা ১৬০সিসি এবং এটি ১৫.২ বিএইচপি এবং ১৩.১ এনএম টর্ক আছে। তাদের তথ্যনুযায়ী নতুন বাইক ৪.৮ সেকেন্ড এ ০-৬০ কি.মি. যায়।

নতুন বাইক এর ওজন এখনও ১৩৭ কে.জি. এবং সামনের চাকা ৯০ এবং পিছনের চাকা ১১০। চাকাগুলো টিউবলেস এবং চাকার ভিতরে খাদ রয়েছে। বাইকটি ২৭০ মি.মি. সামনে পেটাল ডিস্ক এবং সেই অনুযায়ী পিছনে ১৩০ মি.মি. রিয়ার ড্রাম ব্রেক।

tvs apach rtr 160 2018 bangladesh

বাংলাদেশে টিভিএস এপাচি আরটিআর ১৬০ চালু করার সময় তারা ১৭৭,৯০০ টাকা মুল্য নির্ধারন করে (সিঙ্গেল ডিস্ক) এবং কালার অপশেন এ তারা কালো,লাল এবং নীল রং ঘোষণা করে। এই অনুষ্ঠান চলাকালীন টিভিএস অটো বাংলাদেশ অফিশিয়ালি টিভিএস এপ্যাচি আরটিআর ১৬০ এর চাবি বাইকবিডি এর হাতে টেস্ট রাইড এর জন্য তুলে দেয়। টেস্ট করার পর আমরা এই মোটরসাইকেল এর রিভিই এবং এর যাবতীয় তথ্য আমাদের ওয়েব সাইট এ তুলে ধরব।

rtr 160 bikebd test ride handover

স্পেসিফিকেশন অফ টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ ফিচারঃ

ইঞ্জিন এর ধরণঃ- এসএল, ৪-স্ট্রোক, এয়ার-কুল্ড

ইঞ্জিন এর ধারনক্ষমতাঃ ১৫৯.৭ সে.মি.

নাম্বার অফ সিলিন্ডারঃ সিঙ্গেল

সর্ব্বোচ্চ ক্ষমতাঃ ১৫.২ বিএইচপি @৮৫০০ আরপিএম

সর্বোচ্চ টর্কঃ ১৩.১ এনএম @ ৬০০০ আরপিএম

বোরঃ ৬২ মি.মি.

স্ট্রোকঃ ৫২.৯ মি.মি.

কার্বুরেটরঃ ইউসিএএল বিএস-২৬

বোর টু স্ট্রোক রেটিওঃ ১.১৭

ভাল্ভ পার সিলিন্ডারঃ ২ ভাল্ভস

স্ট্রাটিংঃ ইলেকট্রিক এবং কিক-স্ট্রার্ট

আইডল স্পিডঃ ১৪৫০ ± ১০০আরপিএম

ইগনিশোন আইডিআইঃ ডুয়েল মুড ডিজিটাল ইগনিশোন

পাওয়ার টু ওয়েট রেটিওঃ ৮১.২ কি.ওয়াট/টোন

কম্প্রেশন রেটিওঃ ৯.৫ ± ০.৫ঃ১

ম্যাক্স স্পিডঃ ১১৮কি.মি/আওয়ার

ফ্রেমঃ ডাবল ক্রাডেল সিংক্র এসটিআইফফ

ফ্রন্ট সাসপেনশনঃ টেলিস্কোপ ফ্রোক্স উইথ হাইড্রোলিক ডাম্পারস (১০৫ মি.মি. স্ট্রোক)

রিয়ার সাস্পেনশনঃ মনোটিউব ইনর্ভাটেড  গ্যাস-ফিল্ড স্কস (মিইগ) উইথ স্প্রিং এইড

ব্যাটারীঃ ১২ভি, ৯এএইচ

হেড ল্যাম্পসঃ ৩৫/৩৫ হ্যালোজেন এইচএস১ লেন্স উইথ মাল্টি-ফেইস রিফ্লেক্টর

টেইল ল্যাম্পঃ ০.৫ এলইডি-টুইন ট্রাইএঙ্গেল উইথ প্রিজম অন লেন্স

হুইল টাইপঃ কাস্ট এলয়

রিম সাইজঃ ১.৮৫×১৭”(ফ্রন্ট)

রিম সাইজঃ ২.১৫×১৭”(রিয়ার)

টায়ার সাইজঃ ৯০/৯০-১৭” টিউবলে(ফ্রন্ট)

টায়ার সাইজঃ ১১০/৮০-১৭” টিউবলেস(রিয়ার)

ফ্রন্ট ব্রেকঃ ডিস্ক (২৭০ মি.মি. পেটাল টাইপ)

রিয়ার ব্রেকঃ ড্রাম (১৩০মি.মি.)/ ডিস্ক (২০০মি.মি. পেটাল টাইপ)

হাইটঃ ১১০৫ মি.মি.

লেন্থঃ ২০৮৫ মি.মি.

ওয়াডথঃ ৭৩০ মি.মি.

হুইলবেসঃ ১৩০০মি.মি.

গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্সঃ ১৬৫ মি.মি.

সাডেল হাইটঃ ৭৯০মি.মি.

কার্ব ওয়েটঃ উইথ ৯০% ফুয়েল এন্ড টুল কিট ১৩৭ কে.জি.(সিঙ্গেল ডিস্ক)

ফুয়েল কাপাসিটিঃ ১৬ লিটার

মাইলেজঃ ৫০ কি.মি.পার লিটার (কোম্পানিস টেস্ট)

কালারঃ ম্যাট ব্ল্যাক,ম্যাট রেড,ম্যাট ব্ল

--

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*