রমজানে কিওয়ে’তে বিশাল ছাড়!

একেবারে শূন্য থেকে শুরু করে দুই বছরের মধ্যেই বাংলাদেশের মোটরবাইক মার্কেটের প্রথম সারিতে পৌঁছে গেছে কিওয়ে মোটরসাইকেল। এই কৃতিত্বের পুরোটাই স্পিডোজ লিমিটেড এর প্রাপ্য। তাদের কৌশলী বিপণন ব্যবস্থা ও প্রোডাক্ট লাইন আপের কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে। আর এই রমজানে তারা তাদের দুইটি মডেলে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন ও অন্যগুলোতে নগদ মূল্য ছাড় দিচ্ছে। রমজান উপলক্ষে কিওয়ে’র ছাড়গুলো নিয়েই আজকের আয়োজন। বর্তমানে বাজারে কিওয়ে’র ছয়টি মডেল পাওয়া যায়। এ বছর তারা বাজারে ছেড়েছে কিওয়ে আরকেএস১০০। চমৎকার দেখতে এই বাইকটিতে অপেক্ষাকৃত সরু টায়ার ও ওজন কমানো হয়েছে, যার ফলে এটি আরো অধিক জ্বালানি সাশ্রয়ী বাইকে পরিণত হয়েছে। এখন পর্যন্ত আরকেএস১০০-ই তাদের সবেচেয়ে বেশি বিক্রীত…

Review Overview

User Rating: 4.9 ( 1 votes)

একেবারে শূন্য থেকে শুরু করে দুই বছরের মধ্যেই বাংলাদেশের মোটরবাইক মার্কেটের প্রথম সারিতে পৌঁছে গেছে কিওয়ে মোটরসাইকেল। এই কৃতিত্বের পুরোটাই স্পিডোজ লিমিটেড এর প্রাপ্য। তাদের কৌশলী বিপণন ব্যবস্থা ও প্রোডাক্ট লাইন আপের কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে। আর এই রমজানে তারা তাদের দুইটি মডেলে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন ও অন্যগুলোতে নগদ মূল্য ছাড় দিচ্ছে। রমজান উপলক্ষে কিওয়ে’র ছাড়গুলো নিয়েই আজকের আয়োজন।

কিওয়ে আরকেএস-১০০ বাংলাদেশে মূল্যছাড়বর্তমানে বাজারে কিওয়ে’র ছয়টি মডেল পাওয়া যায়। এ বছর তারা বাজারে ছেড়েছে কিওয়ে আরকেএস১০০। চমৎকার দেখতে এই বাইকটিতে অপেক্ষাকৃত সরু টায়ার ও ওজন কমানো হয়েছে, যার ফলে এটি আরো অধিক জ্বালানি সাশ্রয়ী বাইকে পরিণত হয়েছে। এখন পর্যন্ত আরকেএস১০০-ই তাদের সবেচেয়ে বেশি বিক্রীত বাইক।

কিওয়ে আরকেএস-১৫০ এ মূল্য ছাড়তাছাড়া তারা নতুন করে আরকেএস১৫০ বাজারে ছেড়েছে, যা মূলত পূর্বের আরকেভি১৫০ এর উন্নততর ভার্সন। এই বাইকেও তারা ভালো মাইলেজ ও পারফর্মেন্স পাওয়ার জন্য ওজন কমিয়েছে ও সরু টায়ার ব্যবহার করেছে। কিন্তু এর সঙ্গে তারা ইনভার্স শক দিতে ভুলে গেছে!!

আরকেএস১৫০ মূলত একটি ১৫০ সিসির নেকেড বাইক, যেটি বাজারে এই ক্যাটাগরির অন্য বাইকগুলোর সঙ্গে সমানতালে প্রতিযোগিতা করতে এসেছে।

কিওয়ে সুপারলাইট-১৫০ এ মূল্য ছাড়স্পিডোজ এবছর সর্বশেষ বাজারে এনেছে কিওয়ে সুপারলাইট! এটা একটি ১৫০ সিসির ক্রুজার, যা বর্তমানে বাজারে হট কেক! তারা খুব দ্রুত ও সবচেয়ে বেশি এই বাইকগুলো বিক্রি করতে পারছে।

কিওয়ে টিএক্সএম১৫০ এ মূল্য ছাড়অন্যদিকে স্পিডোজ গতবছর বাংলাদেশের বাজারে টিএক্সএম১৫০ নামের ডুয়েল পারপাজ বাইক নিয়ে আসে। এই বাইকটি নিয়েও লোকজন সন্তোষজনক ফিডব্যাকই দিয়েছে।

আমরা বাইকবিডি টেস্ট রাইড রিভিউ এর জন্য কিওয়ে আরকেএস১২৫ টেস্ট করেছি। টেস্টে যদিও এর মাইলেজ ও সর্বোচ্চ স্পিড কম পাওয়া গেছে, তবে এর সাসপেনশন কিন্তু আসলেই খুব ভালো।

সত্যি কথা বলতে কি, ১২৫ সিসির কোনো বাইকে এতো ভালো সাসপেনশন ভাবাই যায় না।

কিওয়ে আরকেএস-১২৫ এ মূল্যছাড়

>>বাংলাদেশে কিওয়ে’র সকল শোরুম দেখতে ক্লিক করুন

যাহোক, ঈদ উপলক্ষে কিওয়ে সারা দেশব্যাপী আগামী ৬ জুলাই পর্যন্ত মূল্য ছাড় দিচ্ছে। তাছাড়া তারা প্রতিটি বাইকে ২ বছরের ইঞ্জিন ওয়ারেন্টি এবং ৪টি ফ্রি সার্ভিসিং দিচ্ছে।

কিওয়ে’তে রমজান উপলক্ষে ছাড়

মডেল বর্তমান মূল্য ঈদের বিশেষ মূল্য অন্যান্য
কিওয়ে আরকেএস-১০০ সিসি ১২৪,৫০০.০০ ১১৬,৫০০.০০  
কিওয়ে আরকেএস-১২৫ সিসি ১৪৮,৫০০.০০ ১৪৪,৫০০.০০  
কিওয়ে আরকেএস-১৫০ সিসি ১৭৯,৯০০.০০ ১৬৯,০০০.০০  
কিওয়ে আরকেভি-১৫০সিসি ১৬৯,৯০০.০০ ১৬১,০০০.০০  
কিওয়ে টিএক্সএম-১৫০সিসি ১৭৯,৯০০.০০ ১৭৯,৯০০.০০ ফ্রি রেজিস্ট্রেশন
কিওয়ে সুপারলাইট-১৫০ সিসি ২১০,০০০.০০ ১৯৯,৯৯৯.০০ ফ্রি রেজিস্ট্রেশন

কিওয়ে আরকেভি১৫০ এ মূল্য ছাড়

স্পিডোজ লিমিটেডের ঠিকানা

হেড অফিস :

হোল্ডিং নম্বর-৬০, নতুন এয়ারপোর্ট রোড, আমতলী, মাহাখালী, ঢাকা-১২১২।

মুঠোফোন : ০১৯৯০ ৪০০৬৫৪, ০১৭৮৩ ৪৪৪৪৮৮

এই আর্টিকেলটি পূর্বে ইংরেজিতে প্রকাশ করা হয়েছে।

About মাহামুদ সেতু

হ্যালো রাইডারস, আমি মাহামুদ সেতু। থাকি রাজশাহীতে, পড়াশোনাও রাবি’তে। যদিও আমার নিজস্ব কোনো বাইক নেই, তারপরও আমি কিন্তু বাইকের ব্যাপারে পাগল। এক্ষেত্রে আমাকে ‘চন্দ্রাহত’ও বলতে পারেন, মানে ওই দূর থেকে চাঁদের (আমার ক্ষেত্রে বাইক) প্রেমে পাগল হয় যারা, তারা আর কি। যাই হোক, মূল কথায় আসি। গত দুই বছর ধরেই আমি বাইকবিডি.কমের নিয়মিত পাঠক। এখান থেকেই আমি বাইক সম্পর্কে আমার জ্ঞানতৃষ্ণা নিবারণ করেছি। ব্লগের সবগুলো লেখাই একাধিকবার পড়েছি। এখানেই জানতে পারলাম বাইক মোডিফিকেশন সম্পর্কে। শেষমেশ এখন তো সিদ্ধান্তই নিয়ে ফেলেছি, বাইক নিয়েই কাজ করবো। মানে, বাইক মোডিফিকেশনটাকেই পেশা হিসেবে নিতে চাচ্ছি। জানি কাজটা কঠিন, তারপরও আমি আশাবদী। আমার জন্য দোয়া করবেন। অবশ্য বাইক মোডিফিকেশন নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী হওয়ার পিছনে আরেকটি কারণ রয়েছে। দেশে এতো এতো সুন্দর, দ্রুতগতির ও ভালো বাইক (বাংলাদেশে আইনত যার সর্বোচ্চ সীমা ১৫০সিসি) আছে, অথচ আমার পছন্দ হোন্ডা সিজি ১২৫। আমার খুবই ইচ্ছা এই ক্ল্যাসিক বাইকটি কিনে নিজের হাতে মোডিফিকেশন করার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!