রেজিস্ট্রেশনবিহীন মোটর সাইকেল মালিকদের জন্য সুখবর

ফেব্রুয়ারির থেকে নিবন্ধনহীন মোটর সাইকেল চলাচলে কড়াকড়ি আরোপ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। এজন্য জানুয়ারি পর্যন্ত বিআরটিএ মোটরসাইকেল নিবন্ধনে বিশেষ সুযোগ দিতে চায়। একইসঙ্গে বিশেষ সুবিধা দিয়ে দেশের সব মোটরসাইকেল নিবন্ধনের আওতায় আনতে ২০১৪ সালে বৃদ্ধি করা ৪০ শতাংশ ফি বন্ধ রাখার প্রস্তাব করেছে বিআরটিএ। তবে অন্যান্য চার্জ অপরিবর্তিত থাকবে বলেও জানা গেছে। বিআরটিএ’র পক্ষ থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। যদিও এখনো তার কোনো জবাব পায়নি বিআরটিএ। বিআরটিএ’র প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ৫১ সিসি থেকে ১০০ সিসি মোটরসাইকেলের নিবন্ধন ফি ৪২০০ টাকা থেকে কমিয়ে ২৫২০ টাকা করা। এছাড়া ১০১ সিসি থেকে ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল ৫৬০০ টাকা…

Review Overview

User Rating: 3.51 ( 5 votes)

ফেব্রুয়ারির থেকে নিবন্ধনহীন মোটর সাইকেল চলাচলে কড়াকড়ি আরোপ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। এজন্য জানুয়ারি পর্যন্ত বিআরটিএ মোটরসাইকেল নিবন্ধনে বিশেষ সুযোগ দিতে চায়। একইসঙ্গে বিশেষ সুবিধা দিয়ে দেশের সব মোটরসাইকেল নিবন্ধনের আওতায় আনতে ২০১৪ সালে বৃদ্ধি করা ৪০ শতাংশ ফি বন্ধ রাখার প্রস্তাব করেছে বিআরটিএ। তবে অন্যান্য চার্জ অপরিবর্তিত থাকবে বলেও জানা গেছে।

রেজিস্ট্রেশনবিহীন মোটর সাইকেল মালিকদের জন্য সুখবর

বিআরটিএ’র পক্ষ থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। যদিও এখনো তার কোনো জবাব পায়নি বিআরটিএ। বিআরটিএ’র প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ৫১ সিসি থেকে ১০০ সিসি মোটরসাইকেলের নিবন্ধন ফি ৪২০০ টাকা থেকে কমিয়ে ২৫২০ টাকা করা। এছাড়া ১০১ সিসি থেকে ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল ৫৬০০ টাকা থেকে কমিয়ে ৩৩৬০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

বিআরটিএ’র তথ্যমতে, মোটরসাইকেল নিবন্ধন ফি’র সঙ্গে ৯০ কেজি পর্যন্ত প্রতিটির জন্য গুণতে হবে ট্যাক্স বাবদ ৫ হাজার টাকা। এর সঙ্গে ডিজিটাল নম্বর প্লেট ফি ২২৬০ টাকা, ডিজিটাল নিবন্ধন ফি ৫৫৫ টাকা। দশ বছরের জন্য এ ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। অর্থাৎ প্রতিটি মোটরসাইকেল নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় খরচ হবে ১০ হাজার ৩৩৫ টাকা।

মোটরসাইকেলের ওজন ৯০ কেজির বেশি হলে ট্যাক্স বাবদ কাটা হবে ১০ হাজার টাকা। অর্থাৎ ৯০ কেজির ঊর্ধ্বে একটি মোটরসাইকেল নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় মোট খরচ হবে ২০ হাজার ৩৩৫ টাকা। ৫১-১০০ সিসির ক্ষেত্রে এ হিসাব প্রযোজ্য হবে। (১০১-১৫০ সিসি) একটি মোটরসাইকেল নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় যাবে ৯০ কেজি পর্যন্ত ১১ হাজার ১৭৫ টাকা। ওজন ৯০ কেজির বেশি হলে খরচ হবে ২১ হাজার ১৭৫ টাকা। ২০১৪ সালের ১ জানুয়ারি মোটরসাইকেল নিবন্ধন ফি ৪০ শতাংশ বাড়িয়ে করা হয়েছিল ৪২০০ ও ৫৬০০ টাকা।

মোটরসাইকেল নিবন্ধন ফি কমানো প্রসঙ্গে বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক শামসুল কবীর বলেন, আমাদের কাছে প্রস্তাব এসেছে, নিবন্ধন ফি যৌক্তিক হারে কমানোর। তবে শুধু নিবন্ধন ফি নাকি অন্যান্য চার্জও কমবে তা স্পষ্ট করা হয়নি। যতটুক জানি, নিবন্ধন ফি’ই কমবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে ৫১-১০০ সিসি মোটরসাইকেলের নিবন্ধন ফি ৪২০০ টাকা থেকে কমিয়ে ২৫২০ টাকা এবং ১০১-১৫০ সিসি মোটরসাইকেল ৫৬০০ টাকা থেকে কমিয়ে ৩৩৬০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির পক্ষ থেকে মোটরসাইকেল নিবন্ধন ফি ৪০ শতাংশ কমানোর সুপারিশ করা হয়েছিল।

About শুভ্র সেন

সবাইকে শুভেচ্ছা । আমি শুভ্র,একজন বাইকপ্রেমী । ছোটবেলা থেকেই মোটরসাইকেলের প্রতি আমার তীব্র আগ্রহ রয়েছে । যখন আমি আমার বাড়ির আশেপাশে কোন মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের শব্দ শুনতে পেতাম, আমি তৎক্ষণাৎ মোটরসাইকেলটি দেখার জন্য ছুটে যেতাম ।২ বছর ধরে গবেষণা ও পরিকল্পনার পর আমি এই ব্লগটি তৈরী করি । আমার লক্ষ্য হল বাইক ও বাইক চালানো সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেয়া । সবসময় নিরাপদে বাইক চালান । আপনার বাইক চালানো শুভ হোক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Sign up to our newsletter!


error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!