Bajaj CT100B লঞ্চ হতে যাচ্ছে বাংলাদেশেঃ গুজব নাকি সত্যি

Bajaj CT100B শীঘ্রই লঞ্চ হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে। সত্যি নাকি গুজব? তবে এই বাইকটি বাংলাদেশের সবচেয়ে সস্তায় মোটরসাইকেল হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ইন্ডিয়া যত মোটরসাইকেল কোম্পানির তাদের মধ্যে সবচেয়ে কম দামে কমিউটিং বাইক হবে Bajaj CT100B। আশা করা যাচ্ছে এই বাইকটির মুল্য ৬৫,০০০ -৭০,০০০/- টাকার মধ্যে হবে। তবে এখনই এটা সরাসরি বলা সম্ভব হচ্ছে না যে আসলে কত টাকা মুল্য হতে পারে। Bajaj CT100 বাইকটি বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় মোটরসাইকেল। এই বাইকটি গ্রাম্য এলাকাতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়েছে। CT100 বাইকটি অনেকটা মোটরসাইকেল ট্যাক্সি বলা যায়। কারণ এই বাইকটিতে এক সাথে ২-৩ জন লোক বসতে পারে। এছাড়া যেখানে অন্য কোন যান বাহন…

Review Overview

User Rating: Be the first one !

bajaj ct100b price in bdBajaj CT100B শীঘ্রই লঞ্চ হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে। সত্যি নাকি গুজব? তবে এই বাইকটি বাংলাদেশের সবচেয়ে সস্তায় মোটরসাইকেল হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ইন্ডিয়া যত মোটরসাইকেল কোম্পানির তাদের মধ্যে সবচেয়ে কম দামে কমিউটিং বাইক হবে Bajaj CT100B। আশা করা যাচ্ছে এই বাইকটির মুল্য ৬৫,০০০ -৭০,০০০/- টাকার মধ্যে হবে। তবে এখনই এটা সরাসরি বলা সম্ভব হচ্ছে না যে আসলে কত টাকা মুল্য হতে পারে।

Bajaj CT100 বাইকটি বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় মোটরসাইকেল। এই বাইকটি গ্রাম্য এলাকাতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়েছে। CT100 বাইকটি অনেকটা মোটরসাইকেল ট্যাক্সি বলা যায়। কারণ এই বাইকটিতে এক সাথে ২-৩ জন লোক বসতে পারে। এছাড়া যেখানে অন্য কোন যান বাহন পৌছতে পারে না, সেখানে এই বাইকটি অনায়াসে পৌছে যায়।

bajaj ct100b price in bangladesh

>>Bajaj  CT100B Specification<<

Bajaj CT100B বাইকটি ১০০সিসি এয়ার কুল্ড ৪ স্ট্রোক ইঞ্জিন বিশিষ্ট। এই ইঞ্জিনটি 8BHP @ 7,500RPM এবং 8NM টর্ক @ 4,500 RPM উতপন্ন করতে পারে। ইঞ্জিনটির সাথে ৪ স্পিড গিয়ার বক্স সমৃদ্ধ। বাজাজ দাবী করছে যে এই বাইকটির মাইলেজ হবে ৯৯কিমি/লিটার (টেস্ট কন্ডিশন)। আর বাইকটি সর্বোচ্চ স্পিড হবে ৯০কিমি/ঘন্টা।

বাইকটির ডিজাইন খুব সাধারন ভাবে করা হয়েছে। বাইকটির ফ্রেম হচ্ছে সিঙ্গেল টিউব সাথে লোয়ার ক্রেডেল ফ্রেম। বাইকটির হেডলাইট গোলাকার আকৃতির। বাজাজ সিটি১০০বি এর ফ্রন্ট হচ্ছে হাইড্রোলিক টেলিস্কোপিক ১২৫মিমি ট্রাভেল সাসপেনশন এবং রেয়ার হচ্ছে SNS সাসপেনশন যা ১১০মিমি। ব্রেক গুলো কনভেনশনাল ড্রাম ব্রেকস যা ১১০মিমি। চাকা গুলো একটু চিকন সাথে স্পোক হুইল। তবে টায়ার গুলো টিবলেস নয়।

bajaj ct100b

CT100B বাইকটির ওজন ১০৯ কেজি। এর ফুয়েল ট্যাঙ্কটিতে ১০.৫লিটার ফুয়েল নেয়া যায়। বাইকটির সামনে লেগ গার্ড এবং শারি গার্ড দেয়া হয়েছে আরামদায়ক রাইডের জন্য। বাইকটি তাদের জন্য প্রযোজ্য হবে যারা কম দামে কমিউটিং বাইক খুজে থাকেন তাদের জন্য। এখন অনেকেই আবার রাইড শেয়ারিং যেমন উবার, পাঠাও, স্যাম এদের জন্য বাইক কিনে থাকেন। এই বাইকটি তাদের ভালো সেবা প্রদান করবে।

এখন আশা যাক খবরটি কি গুজব নাকি সত্যি? Bajaj CT100B বাইকটি কি বাংলাদেশে আসবে নাকি আরো পরে লঞ্চ হবে। তবে বাংলাদেশে দিন দিন কম দামে কমিউটিং মোটরসাইকেলের চাহিদা বাড়ছে। গত কয়েক মাসে ট্রাফিক জ্যাম ও রাইডঃ শেয়ারিং এপস এর কারনে এই বাইকটি ব্যবহার করতে পারবে। এছাড়া বাইকটির সিট অনেক বড় যার কারনে দুজন পূর্ন বয়স্ক মানুষ ভাবে বসতে পারবে। আর উত্তরা মোটরস যদি দাম ৭০ হাজারের মধ্যে রাখে তবে সেটি আরো বাজারে প্রভাব ফেলবে।

ct100b price

বর্তমানে TVS XL100 সবচেয়ে কম দামের মোটরসাইকেল তবে এটি কাব জাতীয় মোটরসাইকেল। যদি মোটরসাইকেলের কথায় আসি তবে Runner RT হচ্ছে সবচেয়ে কমদামী মোটরসাইকেল। তবে Bajaj CT100B বাংলাদেশে ২০১৮ সালে লঞ্চ হবে আর এটি গুজব নয়।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*