বিডি রাইডার্স ক্লাব

বিডি রাইডার্স ক্লাবBD RIDERZ CLUB ) একটি ফেইসবুক ভিত্তিক মোটরসাইকেল ক্লাব যেটা সংক্ষেপে বিআরসি নামেও পরিচিত। বিডি রাইডার্স ক্লাব  প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ২০১১ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাসেল রাইডারের (বিআরসি এর প্রতিষ্ঠাতা ) প্রত্যক্ষ নির্দেশনায় কিছু ভাই ও বন্ধুর সহযোগিতার মাধ্যমে । কিন্তু মজার ব্যাপার হল ক্লাবটি শুধুমাত্র মোটরসাইকেল নিয়ে নয় বরং যে ব্যক্তি মোটরসাইকেল চালায় তাকে নিয়েও । এখানে মোটরসাইকেলের চেয়েও আমাদের কাছে মোটরসাইকেলের চালক অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ণ । মোটরসাইকেল হল একটি বেইস যার মাধ্যমে কিছু মানুষের পছন্দ একজায়গায় মিলিত হয় । টীম বিআরসি বন্ধুত্ব গাঁঢ় করা ও মজা করার জন্য বিভিন্ন অনুষ্ঠান যেমন টি পার্টি, বন্ধুদের সাথে গীটার বাজানো, শর্ট ট্যুর এবং লং ট্যুর আয়োজন করে থাকে ।

bd riderz club

লক্ষ্যঃ

বিআরসি-র লক্ষ্য হল  বিভিন্ন অনুষ্ঠান যেমন খেলাধুলা, গীটার, আড্ডা, ছোট ও দীর্ঘ ভ্রমণ আয়োজনের মাধ্যমে বন্ধুত্বের মজা ছড়িয়ে দেয়া । যে কারণে এর সদস্যরা শুধুমাত্র পরস্পরকে জানবেই না সকলেই একাত্ম হয়ে আনন্দ করতে পারবে ।

উদ্দেশ্যঃ     

বিআরসি-র উদ্দেশ্য হল এদেশের সকল বাইক প্রেমী মানুষের মধ্যে জাতীয় পর্যায়ে বন্ধুত্ব গড়ে তোলা ।

bd riderz club

শ্লোগানঃ

ডেয়ার টু ড্রিম (স্বপ্নের জন্য সাহস বা সাহসিকতার স্বপ্ন )

ধারনাটি কি ছিল ?

প্রত্যেকেই সেই পুরানো প্রবাদটি জানে যে চারটি চাকা শরীরকে নড়াচড়া করায় কিন্তু আত্মাকে নড়ায় দুটি চাকা । আপনার কোন বাইকটি আছে বা আপনি কোন লিঙ্গের এটা কোন ব্যাপার নয় । যে জিনিসটা সবচেয়ে মুখ্য সেটা হল বাইক চালকেরা হল সাহসী যোদ্ধা, তারা স্বাধীনতাকামী এবং তারা তাদের অন্তরের সুখ-দুঃখকে ভাগাভাগি করে নেয় । আমরা বাংলাদেশী বাইক চালকেরা, যাদের কাছে বাইক নেই তাদের কাছে ঈর্ষারপাত্র । তাই বিআরসি বাইক চালকদের একটি বড় সমাজ গড়ে তুলতে চাইছে যার মাধ্যমে তারা খুব সহজেই মজা করার জন্য বা যেকোন সামাজিক সমস্যায় একতাবদ্ধ হতে পারবে । কেননা একজন বাইক চালকই কেবল অন্য আরেকজন বাইক চালকের মনের অবস্থা বুঝতে পারে । একজন সাধারন নাগরিক কখনো একজন বাইক চালককে বুঝতে পারবে না । হ্যাঁ আপনি ঠিকই শুনছেন! যে সকল লোকদের বাইক নেই তারা আমাদের কাছে সাধারন নাগরিকের মত । বাইক চালকেরা আমাদের কাছে বিখ্যাত ব্যাক্তির মত, তারা আমাদের কাছে হিরো । কারণ তারা দুর্ঘটনার ভয়কে অগ্রাহ্য করে, মৃত্যুর সাথে প্রতারণা করে এবং তাদের পক্ষে জয় ছিনিয়ে আনে ।  বিআরসি-তে আমরা আমাদের প্রিয় বাইকগুলোকে দেখি এবং আমাদের জ্ঞান অন্যদের সাথে শেয়ার করি ফলে আমরা সকলেই উপকৃত হই ।

bd riderz club

কারা যোগ দিতে পারবে ?

যে কেউ ( ছেলে,মেয়ে, শিক্ষার্থী, চাকুরীজীবী, ব্যবসায়ী ) যে বাইক ভালবাসে সে যোগ দিতে পারবে । যোগদানের চারটি ধাপ রয়েছে-

ধাপ-১: ফেসবুকের সদস্যরা ( সাধারনত ভক্ত হিসেবে পরিচিত)

আপনি সহজেই আমাদের ফেসবুক পেইজে যোগ দিতে পারেন যেটা আপনার বাইক সকলকে দেখাতে আপনাকে সাহায্য করবে। আপনি যেকোন ধরনের সাহায্য সহযোগিতা চাইতে পারেন এবং আপনি নিঃসন্দেহে আমাদের সদস্যদের কাছ থেকে সাহায্য পাবেন । এছাড়াও আপনি আমাদের ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিতে পারেন যার মাধ্যমে আপনি নতুন বাইক সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য ও বিআরসি-র বিভিন্ন অনুষ্ঠান সম্পর্কে জানতে পারবেন ।

bd riderz club

ধাপ-২:  বন্ধুরা

এটা হল দ্বিতীয় ধাপ যেখানে আপনি নিজে আমাদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আসবেন আমাদের বন্ধু হবেন এবং আমাদের সাথে এক কাপ চা খাবেন । আমরা বন্ধুত্বে বিশ্বাস করি এবং আমরা আপনাকে কথা দিচ্ছি আপনি আমাদের সাথে ভালো থাকবেন ।

ধাপ-৩:  ভ্রাতৃত্ববোধ ( সাধারনত বিআরসি-য়ান নামে পরিচিত )

এটি সদস্য হওয়ার প্রক্রিয়ার একটি গভীর ধাপ । শহরে ঘুরে বেড়ানোর সময় আমাদের একটি নির্দিষ্ট স্টাইল রয়েছে এবং আমরা ঢাকা ও ঢাকার বাইরে প্রায়ই ঘুরতে যায় । আমরা বাংলাদেশের প্রত্যেকটি ঐতিহাসিক স্থানই বাইকের সাহায্যে ঘুরেছি । ভ্রাতৃত্ববোধের কারণে আমরা একই ধরনের টি-শার্ট পড়ে ঘুরি । আমরা একসাথে খায় ,পার্টি করি ইত্যাদি । ভ্রাতৃত্ববোধের সদস্যরা ক্লাবের সদস্যদের মধ্যে বন্ধন দৃঢ় করার জন্য যেকোন পরামর্শ/ উপদেশ দিতে পারে । যার মাধ্যমে আমরা আমাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য অর্জনের পথে আরও এগিয়ে যায় ।

bd riderz club

ধাপ-৪: টীম বিআরসি (সাধারনত ক্যাট নামে পরিচিত- ক্লাব এক্সিলারেসন টীম)

এটা হল  বিআরসি-র সর্বোচ্চ অংশ । এ ধাপের সদস্য হতে হলে   CAT (Commitment, Ambition and Timeliness) অপরিহার্য ।

সি দ্বারা বোঝায় কমিটমেন্ট বা দায়বদ্ধতা । এ ধাপের সদস্য হতে হলে আপনাকে ক্লাবের প্রতি অত্যন্ত দায়বদ্ধ হতে হবে  কারণ দলের প্রত্যেক সদস্যই বিআরসি-র প্রতিনিধিত্ব করে এবং তার ও দলের পরিচিতি অর্জনের জন্য বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজে অংশগ্রহণ করে ।

bd riderz club

এ দ্বারা বুঝায় এমবিসন বা লক্ষ্য । আমাদের শ্লোগান হল “ডেয়ার টু ড্রিম (স্বপ্নের জন্য সাহস বা সাহসিকতার স্বপ্ন)”  এই শ্লোগানটি নিজেই একটি লক্ষ্যের পরিচয় দেয় । তাই আপনাকে উচ্চাকাঙ্ক্ষী হতে হবে এবং দলের জন্য বড় কিছু করতে হবে ।

সর্বশেষ টি দ্বারা বুঝায় টাইমলিনেস । যদি কোন সদস্যকে কোন দায়িত্ব দেয়া হয় তবে তাকে এটা অবশ্যই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করতে হবে ।

আশা করি আমাদের এই লেখাটি দ্বারা আপনি বিরক্ত হবেন না । আমরা বিআরসি-য়ানরা আমাদের গ্রুপ সম্পর্কে কিছু বলতে পেরে সত্যিই গর্বিত । এখানে যে ছবিগুলো দেয়া হয়েছে সেগুলো বিডি রাইডার্স ক্লাব (BD RIDERZ CLUB) এর বিভিন্ন ভ্রমণ ও অনুষ্ঠানের । প্রত্যেকটি ছবিই হাজারটি কথা বলছে। তাই আপনি ছবিগুলো দেখে একটি ধারনা পেতে পারেন । আপনাকে এই বন্ধুত্বের ভিড়ে আমন্ত্রন জানাচ্ছি । আসুন একসাথে হাত মিলায় । আপনি এবং আমরা যদি আত্মাকে ভাগাভাগি করে নেই, তাহলে কি আমরা ভাই নই ?

বিডি রাইডার্স ক্লাব ফেসবুক ফ্যান পেজ

About শুভ্র সেন

সবাইকে শুভেচ্ছা । আমি শুভ্র,একজন বাইকপ্রেমী । ছোটবেলা থেকেই মোটরসাইকেলের প্রতি আমার তীব্র আগ্রহ রয়েছে । যখন আমি আমার বাড়ির আশেপাশে কোন মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের শব্দ শুনতে পেতাম, আমি তৎক্ষণাৎ মোটরসাইকেলটি দেখার জন্য ছুটে যেতাম ।২ বছর ধরে গবেষণা ও পরিকল্পনার পর আমি এই ব্লগটি তৈরী করি । আমার লক্ষ্য হল বাইক ও বাইক চালানো সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেয়া । সবসময় নিরাপদে বাইক চালান । আপনার বাইক চালানো শুভ হোক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!