রানার মোটরবাইকের নতুন অফার

হান্ট রাইডার্স ( HAUNT RIDERS )

২০০৭ সালের নভেম্বর এ কয়েকজন ঘনিষ্ঠ বন্ধুর মাধ্যমে হান্ট রাইডার্স  ( Haunt Riderz )প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল । আমরা যেহেতু নিয়মিত বেড়াতে যায় ও স্টান্ট করি তাই আমরা আমাদের গ্রুপের নাম দিলাম হান্ট রাইডার্স । দিন দিন স্টান্ট বাইকিং এর প্রতি আমাদের ভালবাসা বেড়ে গেল এবং বর্তমানে আমাদেরকে বাংলাদেশের সেরা স্টান্ট রাইডার হিসেবে বিবেচনা করা হয় ।

haunt riderz

আমরা সাধারণত স্টান্ট বাইকিংকে প্রচার করি, যেটা ইতোমধ্যেই আমাদের তরুণ প্রজন্মের কাছে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে । আমাদের মূল লক্ষ্য হল টিনএজার ও তরুণদের মনোযোগ স্ট্রিট রেসিং হতে স্টান্ট বাইকিং এর দিকে সরিয়ে আনা । রাস্তায় দুর্ঘটনার সবচেয়ে সাধারন কারণ হল গতি, যেটা আমরা কঠোরভাবে পরিহার করি । আমরা এমনকি আমাদের বাইকও নিরাপত্তা সরঞ্জাম ছাড়া চালায় না ।

স্টান্ট বাইকিং এর জন্য সর্বোচ্চ ৩০-৪০ কিলোমিটার গতির প্রয়োজন । একজন প্রশিক্ষিত চালকের জন্য এটা সম্পূর্ণ নিরাপদ এবং সে যে কোন অবস্থায় তার বাইক নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবে । আমাদের দেশে স্টান্ট বাইকিং অবহেলিত হওয়ার প্রধান কারণ হল ৭০% চালকই স্টান্টের সময় প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সরঞ্জাম পরে না । আমরা অত্যন্ত নিরাপদ পরিবেশে যথেষ্ট সতর্কতার সাথে নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার মাধ্যমেই কেবল স্টান্ট অনুশীলন করি ।

haunt riderz

স্টান্ট ছাড়াও সামাজিক দায়বদ্ধতা ও গনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য আমরা শোভাযাত্রা করি। এখন কেউ জিজ্ঞেস করতে পারে “ স্টান্ট বাইকিং কিভাবে সামাজিক ব্যাপার হতে পারে ?” আমি বলব “জনগণকে সতর্ক করার একটি ভাল উপায় হল স্টান্ট বাইকিং।” হয়ত আপনি আপনার কাস্টমারের সাথে ফোনে গুরুত্বপূর্ণ কথা বলছেন বা গুরুত্বপূর্ণ ফাইল দেখতে ব্যস্ত  এক্ষেত্রে স্টান্ট বাইকিং সহজেই আপনার মনোযোগ আকর্ষণ করতে পারে । এটিকে শুধুমাত্র একটি আন্তর্জাতিক খেলা ছাড়াও আরও কিভাবে কাজে লাগানো যায় তা আমাদের চিন্তা করতে হবে ।

haunt riderz

কেউ যদি বাইক স্টান্ট শিখতে চায় তাহলে তার জন্য আমাদের দেশে সেরা উপায় হল ইন্টারনেট । এছাড়াও কেউ যদি স্টান্ট রাইডার হতে চায় তাহলে আমরা অবশ্যই সাহায্য করবো যদিও আমরা বেসিক ট্রেনিং সম্পন্ন করেছি । এছাড়াও অবশ্যই তার একটি বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স, নিজের বাইক ও প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সরঞ্জাম অবশ্যই থাকতে হবে ।

হান্ট রাইডার্স (HAUNT RIDERS) এর সদস্য হওয়ার জন্য স্টান্ট রাইডার হওয়ার প্রয়োজন নেই কিংবা কোন নির্দিষ্ট নিয়ম বা আনুষ্ঠানিকতারও প্রয়োজন নেই ।

আমাদের সবার মধ্যে যে জিনিসটি রয়েছে সেটা হল ভ্রাতৃত্ববোধ । এটা আমাদের সকল পরিস্থিতে একতাবদ্ধ রাখে।

অর্জনসমূহঃ

*এম টিভি স্টান্ট ম্যানিয়াতে অনেকবার প্রচারিত হয়েছে

*স্পিড ট্র্যাক মাস্টার প্রতিযোগিতা ( প্রথম রানারআপ)

*ডিজুস কমার্শিয়াল ফিচারিং হান্ট রাইডার্স

*দৈনিক ইন্ডিপেনডেন্ট এ প্রকাশিত

*ঢাকা লাইভ এ প্রচারিত

*বিডি বাইক স্টান্ট এবং বিডি কার ও বাইক  এ অসংখ্যবার প্রকাশিত

*ডেইলি সান এ প্রকাশিত

*ইন্ডিপেনডেন্ট চ্যানেলে প্রচারিত

*দৈনিক যুগান্তর এ প্রকাশিত

*বিডি নিউজ ২৪ এ প্রকাশিত

*দৈনিক কালেরকণ্ঠ তে প্রকাশিত

*দৈনিক বনিক বার্তা তে প্রকাশিত

*চ্যানেল ২৪ এ সাক্ষাৎকার প্রচারিত হয়েছে

haunt riderz

 স্টান্ট রাইডার্সঃ

১. জিয়াউল হক সিদ্দিকী

২.কে এইচ রইসুর রহমান

৩.মোঃ মিঠুন মৃধা

৪. সরফরাজ খান রাইয়ান

৫. মনিরুল ইসলাম রুবেল

৬. কাজী শিহাব

৭.লুবাব হক

৮. বাপ্পী

৯. এনাম ইসলাম

haunt riderz

সম্পাদকমণ্ডলীঃ

১. ডিজে অন্তু

২.সামিউল হক

৩. ডলার আহমেদ

বর্তমানে হান্ট রাইডার্স “ ভেলোসিটাঃ জেনারেশন নেক্সট” এর সহআয়োজক হিসেবে কাজ করছে । স্টান্ট বাইকিং বাইক নিয়ে শুধুমাত্র কিছু নড়াচড়া নয় বরং এটা একটা শিল্পের অংশ । নিরাপদে চলুন ।

 

About শুভ্র সেন

সবাইকে শুভেচ্ছা । আমি শুভ্র,একজন বাইকপ্রেমী । ছোটবেলা থেকেই মোটরসাইকেলের প্রতি আমার তীব্র আগ্রহ রয়েছে । যখন আমি আমার বাড়ির আশেপাশে কোন মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের শব্দ শুনতে পেতাম, আমি তৎক্ষণাৎ মোটরসাইকেলটি দেখার জন্য ছুটে যেতাম ।২ বছর ধরে গবেষণা ও পরিকল্পনার পর আমি এই ব্লগটি তৈরী করি । আমার লক্ষ্য হল বাইক ও বাইক চালানো সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেয়া । সবসময় নিরাপদে বাইক চালান । আপনার বাইক চালানো শুভ হোক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*