Hero Xtreme Sports এর মালিকানা রিভিউ লিখেছেন – ফাহিম

শুভেচ্ছা  সবাইকে!  আমি ফাহিম বিশ্বাস তুষার, একজন ছাত্র এবং মনেপ্রানে একজন বাইকার। গত দুই বছর ধরে আমি আমার প্রিয় Hero Xtreme Sports বাইকটি চালাচ্ছি । আজ আমি আপনাদের সাথে আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো আমার Hero Xtreme Sports নিয়ে। সত্যি বলতে সবসময়ই Hero Hunk এর উপর অন্য রকমের একটি অন্যরকম টান ছিলো,  সেইসুত্র ধরেই Hero শোরুমে যাওয়া।শোরুম এর ম্যানেজার বাবার পরিচিত হওয়ায় সে Hero Hunk না নিয়ে Hero Xtreme Sports নিতে বললো। বাইকটি তখনও শোরুমে তোলা হয়নি, গোডাউনে রাখা ছিলো। বাবা দেখাতে বলার পরে সেই প্রথমবারের মতো সামনে আসে এই দানবটি! একদম অন্যরকম একটি চেহারা নিয়ে যা আমি আগে কখনো দেখিনি।…

Review Overview

User Rating: 3.62 ( 3 votes)

শুভেচ্ছা  সবাইকে!  আমি ফাহিম বিশ্বাস তুষার, একজন ছাত্র এবং মনেপ্রানে একজন বাইকার। গত দুই বছর ধরে আমি আমার প্রিয় Hero Xtreme Sports বাইকটি চালাচ্ছি । আজ আমি আপনাদের সাথে আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো আমার Hero Xtreme Sports নিয়ে।

hero xtreme sports

সত্যি বলতে সবসময়ই Hero Hunk এর উপর অন্য রকমের একটি অন্যরকম টান ছিলো,  সেইসুত্র ধরেই Hero শোরুমে যাওয়া।শোরুম এর ম্যানেজার বাবার পরিচিত হওয়ায় সে Hero Hunk না নিয়ে Hero Xtreme Sports নিতে বললো। বাইকটি তখনও শোরুমে তোলা হয়নি, গোডাউনে রাখা ছিলো। বাবা দেখাতে বলার পরে সেই প্রথমবারের মতো সামনে আসে এই দানবটি! একদম অন্যরকম একটি চেহারা নিয়ে যা আমি আগে কখনো দেখিনি।  কিন্তু প্রথমে আমি রাজি হই না এই বাইক নিতে, কারণ এটি আমার কাছে একদম নতুন একটি মেশিন এবং এর পারফরমেন্স কেমন সেইটুকুও  জানি না। কিন্তু বাবা একপ্রকার জোর করে বললো, এইটাই নিতে হবে। বাবার কথার অবাধ্য কখনো  হইনি, সেই দিনও হতে পারলাম না। নিয়ে নিলাম Hero Xtreme Sports! যখন প্রথম বাইকটিতে বসি,  এক অন্য রকম অনুভূতি পেলাম, থ্রটলে মোচড় দিতেই বুঝলাম,  এ সাধারণ কিছু না!

বাইকটি আমি কিনি ২০১৫ এর ৮ই জুলাই।  আজ পর্যন্ত  বাইকটি মোট ৩২০০০+ কিমি চলেছে।

Hero Xtreme Sports এর সর্বশেষ মূল্য দেখতে এখানে ক্লিক করুন

hero xtreme sports price in bangladesh 2017

Hero Xtreme Sports : আউটলুক

আউটলুকের ব্যাপারে সর্বপ্রথম যা বলবো তা হলো এর স্ট্রিট ফাইটার লুক। যখন সামনে থেকে বাইকটিকে দেখা যায় তখম মনে হয় যেনো একটি হিংস্র নেকড়ে তাকিয়ে আছে । এর LED টেইল লাইট বেশ নজরকাড়া, যে দেখবে সেই পছন্দ করবে। বাইকটির একটি স্পেশালিটি হচ্ছে এর চাবির পজিশন।  এর চাবির পজিশনটা একদমই  ভিন্ন, যা আগে কখনো কোথাও দেখিনি।  প্রথমে একটু সমস্যা  হলেও পরে অভ্যাস হয়ে গেছে, এবং যখন কেউ বাইকের চাবি নিয়ে চাবি কোথায় দিবে তা খুজে বেড়ায়, তখন আমি বেশ মজা নেই। এর মিটারটি আগের Hero Honda CBZ Extreme এর মতোই সেমি ডিজিটাল, এবং দেখতে বেশ সুন্দর।

hero xtreme sports mileage

Hero Xtreme Sports : ইঞ্জিন এবং পারফর্মেন্স

বাইকটির ইঞ্জিন অন্যান্য বেশিরভাগ এয়ার কুল্ড ইঞ্জিন থেকে বেশি শক্তিশালী, ১৫.৬ বিএইচপি পাওয়ার ডেলিভারি করে। ইঞ্জিন খুবই স্মুথ ও এর ১৫.৬ বিএইচপি কি করতে পারে তা এই দানবটি যার আছে সেই বুঝতে পারবে।  ১ম ৩টি গিয়ার যেনো শুধু এর এক্সেলারেশন এর জন্য টিউন করা। রেসে নামলে ১৫০সিসি এয়ার কূল্ড সেগমেন্ট এর যেকোনো বাইককে এর টেইল লাইট দেখতে হবে। যদিও পাবনা তে ফাকা রাস্তা খুব কম ই পাওয়া যায়,  তবুও Hero Xtreme Sports বাইকে আমি ১১৯ kmph টপস্পীড পেয়েছি।

hero xtreme sports 2017 review

Hero Xtreme Sports : কমফোর্ট

কমফোর্ট এর দিক দিয়ে আমি খুবই সন্তুষ্ট।  ঝাকুনি কি জিনিস তা বুঝতেই দেয় না বাইকটির GRS সাসপেনশন।  এর সিটিং পজিশন অসাধারন। লং রাইডে খুবই আরামদায়ক।  হ্যান্ডেলবারটি এমন ভাবে স্থাপন করা যে, Hero Xtreme Sports চালিয়ে অন্য বাইকগুলোর তুলনায় কম ক্লান্তি অনুভব করবেন । বাইকটি চালালে ব্যাকপেইন কখনোই হয় না।

Hero Xtreme Sports : ডিউরেবিলিটি

আমার বাইকের বয়স প্রায় দুইবছর হয়ে যাচ্ছে, কিন্তু এখনো এর পারফর্মেন্স ঠিক যেনো নতুনের মতোই। মাঝখানে অবশ্য একবার চেইন স্প্রকেট ও ক্লাচপ্লেট  চেঞ্জ করেছি। তবে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে যা বলতে পারি,  ঠিক ভাবে ব্যাবহার করলে বাইকটির স্থায়িত্ব নিয়ে ভাবতে হবে না।

hero xtreme sports 2017 model

Hero Xtreme Sports : ব্যালেন্সিং এবং কর্নারিং

বাইকটির ব্যালেন্স নিয়ে আমি বেশ সন্তুষ্ট,  কিন্তু ১৪৯ কেজির দৈত্যটিকে ভীড়ের মধ্যে ব্যালেন্স করা একটু ঝামেলার কাজ বটে। তবে কর্ণারিং এ বাইকটি আপনাকে কখনোই । আমি ৮০ kmph স্পীডেও কর্ণারিং করেছি, বাইকটি কোন সমস্যাই করেনি।

Xtreme Sports : ব্রেকিং সিস্টেম

আমার বাইকটি Hero Xtreme Sports Double Disc Edition। আমার দৃষ্টিতে বাইকটির ব্রেকিং অসাধারন। এর টায়ার আরেকটু মোটা হলে আরো ভালো হতো,  তবে রাস্তায় বেশ ভালো সাপোর্ট দেয়।

ইতিবাচক দিকসমূহ

সর্বপ্রথম যা বলবো,  বাজেট এর মধ্যে যদি সেরা এক্সেলারেশন + পারফর্মেন্স + ব্রেকিং  চান,,  তাহলে Xtreme Sports ই থাকা উচিৎ আপনার তালিকার শীর্ষে। বাইকটি খুবই জ্বালানি সাশ্রয়ী,গড়ে  ৪৫ kmpl  পাচ্ছি। ইঞ্জিন ওভার হিট হয় না।

hero xtreme sports price in bangladesh

নেতিবাচক দিকসমূহ

প্রথমেই বলবো দানবটির টায়ার আরো মোটা হলে  ভালো হতো।  হর্ন এর আওয়াজ খুবই কম।  উচ্চতা অনেকটাই বেশি,  তাই একটু শর্ট কেউ ইচ্ছে করলেও  হাইট এর জন্য নিতে পারবে না। ৬ষ্ঠ গিয়ার এর অভাব অনুভব করি।  চাবির পজিশন টা নিয়ে শুরুতে শুরুতে ঝামেলায় পড়তে হতে পারে।  ওজন তুলনামূলক ভাবে বেশি।

hero xtreme 2017 model price in bd

কোনো কিছুই ১০০% নিখুত হয় না। সেদিক বিবেচনা করে Hero Xtreme Sports আমাকে কখনো হতাশ হতে দেয়নি।  এভাবেই কেটে গেছে দেড়টি বছর, আর আজও দানবটি আমার চলার পথের সাথী।

তো এভাবেই দেখতে দেখতে প্রায় ২ বছর কেটে যাচ্ছে আমার Hero Xtreme Sports এর সাথে, আজো এর পারফরমেন্স একই, শুরুতে যেমনটা ছিলো। এর গর্জন শুনে যে কেউ তাকাতে বাধ্য। সর্বোপরি যা বলবো, Hero Xtreme Sports দৈত্য টি নিয়ে বেশ ভালোই আছি।

লিখেছেনঃফাহিম বিশ্বাস তুষার

 

আপনিও আমাদেরকে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠাতে পারেন। আমাদের ব্লগের মাধ্যেম আপনার বাইকের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা সকলের সাথে শেয়ার করুন! আপনি বাংলা বা ইংরেজি, যেকোন ভাষাতেই আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ লিখতে পারবেন। মালিকানা রিভিউ কিভাবে লিখবেন তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং তারপরে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠিয়ে দিন articles.bikebd@gmail.com – এই ইমেইল এড্রেসে।

About আহমেদ স্বজন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!