রানার মোটরবাইকের নতুন অফার

Motorcycle Riding Gear – প্রোটেক্টিভ এপারেলস ও সেফটি ইস্যু

মোটরসাইকেল বা বাইক যাই বলি না কেন এটি চালাতে বা রাইড করতে আমাদের সবারই ভালো লাগে। যদিও এটি একটি বিপদজনক বাহন। তবুও পুরো পৃথিবী জুড়ে মোটরসাইকেল ট্রান্সর্পোটেনশ এর ক্ষেত্রে অনেক বেশি এগিয়ে। কারণ এটি স্বাধীন ভাবে ঘুরে চলা সবাইকে আকৃষ্ট করে। বাইক রাইডিং অনেক বেশি ইনজয় ফুল, স্বাধীন এবং কিছুটা বিপদজনক বিধায় কিছু সাবধানতা অবল্বন করা জরুরী। তাই আজ আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি মোটরসাইকেল Riding Gear ও সেফটি ইস্যু নিয়ে আমাদের আলোচনা। আশা করছি আমাদের আলোচনা থেকে আপনি মোটরসাইকেল রাইডিং গিয়ার ও সেফটি সম্পর্কে একটি ধারনা পাবেন। যাতে করে আপনার রাইড আরো মজার এবং সেফলি হবে। Motorcycle Riding Gear…

Review Overview

User Rating: Be the first one !

মোটরসাইকেল বা বাইক যাই বলি না কেন এটি চালাতে বা রাইড করতে আমাদের সবারই ভালো লাগে। যদিও এটি একটি বিপদজনক বাহন। তবুও পুরো পৃথিবী জুড়ে মোটরসাইকেল ট্রান্সর্পোটেনশ এর ক্ষেত্রে অনেক বেশি এগিয়ে। কারণ এটি স্বাধীন ভাবে ঘুরে চলা সবাইকে আকৃষ্ট করে। বাইক রাইডিং অনেক বেশি ইনজয় ফুল, স্বাধীন এবং কিছুটা বিপদজনক বিধায় কিছু সাবধানতা অবল্বন করা জরুরী। তাই আজ আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি মোটরসাইকেল Riding Gear ও সেফটি ইস্যু নিয়ে আমাদের আলোচনা। আশা করছি আমাদের আলোচনা থেকে আপনি মোটরসাইকেল রাইডিং গিয়ার ও সেফটি সম্পর্কে একটি ধারনা পাবেন। যাতে করে আপনার রাইড আরো মজার এবং সেফলি হবে।

motorcycle riding gear basic apparel

Motorcycle Riding Gear – বেসিক এপারেলস

মোটরসাইকেল রাইডারদের জন্য প্রথম ও গুরুত্বপূর্ন যে বিষয়টি, তা হলো রাইডার্স সেফটি। যেহেতু এটি দু চাকার একটি বাহন। তাই রাইডিং বিপদজনক ও দুর্ঘটনাও ঘটে থাকে যদি কেউ সাবধানে বাইক রাইড না করে। এছাড়া অন্য বাইকার ও পথচারীদের কারনেও অনেক সময় দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। তাই মোটরসাইকেল রাইডারদের জন্য সেফটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ন।

সেফটির জন্য রাইডারের সেফটি গিয়ার ও এপারেলস ভাইটাল ইস্যু। তবে সবার জন্য নির্দেশনা হচ্ছে মিনিমাম সেফটি গিয়ার পরিধান করা বা যতটুকু পারা যায় ততটুকু সেফটি গিয়ার পরিধান করা। সেফটি গিয়ার পরিধান করলে রাইডার কে ক্লান্তি, বাতাসের চাপ, ধুলা-বালি এমনকি শরীরে আচড় পরা থেকে রক্ষা করে থাকে।

motorcycle riding gear protective apparel

সাধারন ভাবে রাইডিং এর ক্ষেত্রে আমরা কিছু কমন ও স্ট্যান্ডার্ড রাইডিং গিয়ার লিস্ট করেছি। এই সেফটি গিয়ার গুলো আপনার সচরাচর চলাচলে বা প্রতিদিনের রাইডিং এর ক্ষেত্রে অবশ্যই পরতে হবে।

  • ফুলফেস হেলমেট এবং রংবিহীন ও ন্যাচেরাল ট্রান্সপারেন্ট ভাইসর ব্যবহার করতে হবে।
  • সুরক্ষাকারী বুট জুতা ব্যবহার করতে হবে। যা আপনার পা এবং এঙ্কেল কে রক্ষা করবে।
  • এক জোড়া ফুল সাইজ গ্লাভস।
  • নি ও এলবো গার্ড।
  • অল ওয়েদার উইন্ড ব্রেকার

motorcycle-riding-guards-in-bangladesh

 Click to Know standard riding gears

এই গুলো হচ্ছে স্ট্যান্ডার্ড ও কমন সেফটি গিয়ার যা যেকোন দেশে এবং যেকোন রাস্তায় রাইডিং এর জন্য প্রয়োজন। কিন্তু যখনই কোন রাইডার দূরে বা লং ট্যুরে জন্য যাবেন তখন অতিরিক্ত কিছু সেফটি গিয়ার অত্যাবশ্যক।

Motorcycle Riding Gear – সেফটি এপারেলস

সেফটি গিয়ারের অনেক ধরন রয়েছে। একটি হচ্ছে পুরো বডি সেফটি গার্ড। এছাড়া এলবো গার্ড, কাধ, মেরুদন্ড এবং বুক কে কভার করে থাকে। আপনি চাইলে সব গুলো আলাদা আলাদা ভাবে ব্যবহার করতে পারেন। আপনি কেল্ভারের জ্যাকেট ও ট্রাউজার ব্যবহার করতে পারেন। রাইডিং জ্যাকেট ও ট্রাউজার লং রাইডের জন্য কমন সেফটি।

motorcycle riding gear standard riding gear

যদি আবহওয়া ভিন্ন হয় তবে আপনি শীতের জন্য আলাদা ও বর্ষার জন্য আলাদা ভাবে সেফটি গ্রহন করতে হবে। আপনি চাইলে জ্যাকেটের নিচে আলাদা ভাবে কাপড় পরিধান করতে পারেন। আর ভালো মানের রেইন স্যুট আপনাকে বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা করবে।

ফগি আবহওয়ার জন্য রাইডার কে এন্টি ফগ ভাইসর ব্যবহার করতে হবে। এর সাথে ওয়াটার প্রুফ অথবা সিন্থেটিক গ্লাভস ব্যবহার করা। আর পায়ের জন্য শীত ও বর্ষায় বুট ব্যবহার করা জরুরী।

motorcycle accessories in bangladesh

Click To Know  Anti-fog

তবে গরম কালের ক্ষেত্রে সেফটি গিয়ার্স এবং এপারেলস একটু আলাদা। কিন্তু এসব সেফটি গিয়ার বাংলাদেশে অনেক এভেইলেবল। এছাড়া কাধে হাইড্রেশন প্যাক অনেক সাহায্য করে সব আবহওয়াতে ডিহাড্রেশন থেকে রক্ষা করে।

Motorcycle Riding Gear – যেসব বিষয় এড়িয়ে চলা উচিত

বাংলাদেশ এবং এশিয়ার অনেক দেশে মোটরসাইকেল রাইডিং এর ক্ষেত্রে আমরা অনেক কিছু গ্রুরুত্বের সাথে নেই না। আমরা আসলে রাইডিং এর সময় কি পরা উচিত সে বিষয়ে তেমন সতর্ক নই। মিনিমাম সেফটি বা রাইডিং ম্যানার সম্পর্কেও আমাদের ধারনা কম।

প্রথমে আসুন আমরা জানি হেলমেট এর সম্পর্কে। এহসিয়ার অনেক দেশেই ছোট ক্যাপ বা হেলমেট ছাড়া বাইক চালানো অনেক কমন বিষয়। আপনারা যারা হেলমেট ছাড়া বাইক রাইড করে থাকেন, আপনাদের কাছে অনুরোধ রইল আজ থেকে আর হেলমেট ছাড়া বাইক রাইড করবেন না। কারণ এতে করে আপনার কোন সেফটি হবে না বা আপনি সুরক্ষিত থাকবেন না। এছাড়া হাফ ফেস হেলমেট পরা ছেড়ে দিন। কারণ এই হেলমেট আপনাকে তেমন সুরক্ষা দেবে না। শুধু মাত্র ফুল ফেস হেলমেট আপনাকে পুরোপুরি সুরক্ষা দেবে।

saleh md hassan in basic motorcycle riding gear

দ্বিতীয়ত যে বিষয়টির কথা বলব তা হলো বুট ছাড়া বাইক রাইড করা। আমাদেরে এসব অঞ্চলে লোকজন স্লিপার জুতো পরে বাইক রাইড করে থাকে। যা কাম্য নয়। এই বিষয়টি আপনার মনযোগে ব্যাঘাত করবে। যা দুর্ঘটনার প্রবনতা বাড়িয়ে দেবে।

তৃতীয়ত অনেক লুস ফিট কাপড় বা পোশাক পরা। এসব লুস ফিটিং কাপড় অনেক বেশি বিপদজনক বাইক রাইডিং এর ক্ষেত্রে। তাই এ ধরনের কাপড় পরা থেকে বিরত থাকুন। আবহওয়ার অবস্থা অনুযায়ী একটু টাইট ফিট কাপড় পরার চেষ্টা করুন।

riding gear safety

চতুর্থ ও শেষ বিষয় হচ্ছে সস্তা দামের সেফটি গিয়ার না কেনা। মানে হলো কম দামে খারাপ মানের গ্লাভস এবং প্রোটেক্টিভ গিয়ার কেনা। আপনি যদি নিজের ভালো চান তবে এ ধরনের রাইডিং গিয়ার কেনা থেকে বিরত থাকুন। একটি একটি করে কিনুন কিন্তু ভালো মানের সেফটি গিয়ার কিনুন।

Motorcycle Riding Gear – অভ্যাসে পরিনত করুন

এই ছিলো আমাদের আজকের আলোচনা Motorcycle Safety Gear & Protective Apparels এর ব্যাপারে। ধীরে ধীরে রাইডিং গিয়ার ও সেফটি কিট পরিধানের অভ্যস করুন। আশা করছি সেফটি গিয়ার কতটা প্রয়োজনীয় তা বুঝতে পেরেছেন। তাই সেফটি গিয়ার এর ক্ষেত্রে কোন কম্প্রমাইজ করবেন না। আপনার সেফ রাইডিং, ব্যবহার এবং স্মার্টনেস আপনাকে আপনার এলাকার আর্দশ করে তুল্বে আশা রাখি। ধন্যবাদ সবাইকে।

About আহমেদ স্বজন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*