Pulsar 150 2017 মালিকানা রিভিউ লিখেছেন গালিব

আমি গালিব। প্রায় ১ বছর দুই মাস ১০০সিসি বাইক চালানোর পরে ইচ্ছা জাগলো সিসি আপগ্রেডের । পছন্দের তালিকায় ছিল হোন্ডা হরনেট এবং পালসার এনএস ১৬০ । কিন্তু বাইক দুটা কখন আসবে তার কোন সদুত্তর পাচ্ছিলামনা। কিন্তু নতুন বাইক নিতেই হবে। শেষমেষ সিদ্ধান্ত নিলাম হোন্ডা ট্রিগার র অথবা Pulsar 150 2017 মডেল। শোরুম ঘুরে দুটো বাইক দেখলাম। তারপর ফ্যামিলী একোমোডেশান চিন্তা করে এবং নতুন ভার্সন চিন্তা করে Pulsar 150 2017 কিনলাম।

pulsar 150 2017 bd

Bajaj Pulsar 150 2017 Edition: What’s The Difference With The Previous Pulsar?

Bajaj Pulsar 150 2017 – লুকস

প্রথমেই এর বাহ্যিক সৌন্দর্য এর কথা বলি কালো গাড়ীর প্রতি আমার ছোটবেলা থেকেই দুর্বলতা, তাই পছন্দ করলাম লেজার ব্ল্যাক কালারের বাইকটি। কালোর সাথে লালের সংমিশ্রন বাইকটিকে এনে দিয়েছে অনন্য সৌন্দর্য। আর তার সাথে যুক্ত আছে কিছু গ্রাফিক্স ওয়ার্ক। স্ট্যান্ডার্ড লুকিংয়ের সাথে কিছুটা মাসল লুক অনেকটা স্পোর্টস বাইকের স্বাধ পুরণ করে দেয়।

pulsar 150 2017 price

Bajaj Pulsar 150 2017 Price In Bangladesh – October 2017

শোরুম থেকে বের করে বাইকে চাবি দিয়ে যখন কিক দিলাম উত্তেজনায় স্টার্ট  নিলোনা। আবার ট্রাই করে স্টার্ট দিয়ে গিয়ার ফেলে যখন টান দিলাম অদ্ভুত সুন্দর এক ইন্জিন সাউন্ড পেলাম। এক কথায় সাউন্ড এর প্রেমে পড়লাম । বাইকটির হর্ন এর আওয়াজ যখন বাজে আবার শুনতে ইচ্ছে করে।

Bajaj Pulsar 150 2017 – কন্ট্রোল, ব্রেক

ফুয়েল ষ্টেশন থেকে ফুয়েল লোড করে বাসায় চলে আসলাম।১৫০ কিলোমিটার রাইড শেষে আমার কাছে এটা মনেই হয়নি যে আমি এ প্রথম ১৫০ সিসি রাইড করছি। বাইকটি ব্যালেন্সড । কনট্রোলিং অসাধারন যখন খুশী তখন যেদিকে খুশী সেদিকে ঘুরানো যায়।ব্রেকিং এর কথা বলতে গেলে পেছনের ড্রাম ব্রেক যথেষ্ট কার্যকরী , সামনের ডিস্ক ব্রেক অসাধারন । মনেই হচ্ছেনা আমি এ প্রথম ডিস্ক ব্রেক ইউজার। একথায় আমি যখন থামতে চাচ্ছি তখনই দুই ব্রেকের সমন্বয়ে যথাসময়ে থামতে পারছি আল্লাহর অশেষ রহমতে।

pulsar 150 2017

এখনো পর্যন্ত তেমন কিছু খারাপ লাগেনি।AHO সিষ্টেম বিরক্তিকর লাগছে।লাইটে আলো স্বল্পতা আছে অনেকটা। গিয়ার শোয়িং না থাকাতে বুঝতে সমস্যা হয় কোন গিয়ারে আছে। গিয়ার নিউট্রলে আনতে খানিকটা বেগ পেতে হয়।

ব্যক্তিগত ভালো লাগার উপর নির্ভর করে আমি আমার Bajaj Pulsar 150 2017  সম্পর্কে এই লিখা। সবাই ভুল হলে মাফ করবেন। দোয়া করবেন ভাল থাকার জন্য। হেলমেট পরে রাইড করবেন। ব্রেকইন পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর আবার লিখার ইচ্ছা রেখে শেষ করলাম। সবাই ভাল থাকবেন।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*