yamaha aerox 155: স্পোর্টস স্কুটার বাংলাদেশে

বাংলাদেশে স্কুটার এর চাহিদা দিন দিন বাড়ছে, আমদের দেশের বেশির ভাগ স্কুটার হচ্ছে কমিউটার টাইপের। স্কুটার একটি আরামদায়ক বাহন এবং মালামাল পরিবহনের জন্য খুবই গুরুত্বপুর্ন। সম্প্রতি বাংলাদেশের কিছু বাইক ইমপোর্টার Yamaha Aerox 155 স্কুটারটি বাংলাদেশে এনেছে, এটি একটি স্পোর্টি স্কুটার। Yamaha Aerox আসলে একটি মপড বা স্কুটার যা ইন্দোনেশিয়াতে তৈরি হয়েছে। কিন্তু এর সবচেয়ে বিস্ময়কর ব্যাপার হচ্ছে যে এই স্কুটার এ ব্যাবহৃত হয়েছে ১৫৫ সি সি এর এ্যারোক্স ইঞ্জিন, এই টাইপের ইঞ্জিন ব্যাবহৃত হয়েছে ইয়ামাহা এর জনপ্রিয় মডেল Yamaha R15 V3 তে তবে কিছুটা টিউনিং করে। এটি একটি খুব ভাল স্কুটার, যা তৈরি করা হয়েছে কমফোর্ট এবং পার্ফমেন্সের কথা চিন্তা…

Review Overview

User Rating: 3.92 ( 3 votes)

বাংলাদেশে স্কুটার এর চাহিদা দিন দিন বাড়ছে, আমদের দেশের বেশির ভাগ স্কুটার হচ্ছে কমিউটার টাইপের। স্কুটার একটি আরামদায়ক বাহন এবং মালামাল পরিবহনের জন্য খুবই গুরুত্বপুর্ন। সম্প্রতি বাংলাদেশের কিছু বাইক ইমপোর্টার Yamaha Aerox 155 স্কুটারটি বাংলাদেশে এনেছে, এটি একটি স্পোর্টি স্কুটার।

yamaha aerox 155cc bd

Yamaha Aerox আসলে একটি মপড বা স্কুটার যা ইন্দোনেশিয়াতে তৈরি হয়েছে। কিন্তু এর সবচেয়ে বিস্ময়কর ব্যাপার হচ্ছে যে এই স্কুটার এ ব্যাবহৃত হয়েছে ১৫৫ সি সি এর এ্যারোক্স ইঞ্জিন, এই টাইপের ইঞ্জিন ব্যাবহৃত হয়েছে ইয়ামাহা এর জনপ্রিয় মডেল Yamaha R15 V3 তে তবে কিছুটা টিউনিং করে। এটি একটি খুব ভাল স্কুটার, যা তৈরি করা হয়েছে কমফোর্ট এবং পার্ফমেন্সের কথা চিন্তা করে।

aerox price in bd

এই স্কুটার এর ইঞ্জিন টি পিছনের সিটের নিচে অবস্তিত, এর ইঞ্জিনটি ১৫৫ সি সি এর ওয়াটার কুলড ইঞ্জিন। এর ইঞ্জিনে আছে Smart Motor Generator (SMG) সিস্টেম যা দেয় স্মুথ নয়েজ যখন এর ইঞ্জিন অন করা হয়। এর ইঞ্জিনে আছে Blue Core Technology  যা দেয় ভাল ফুয়েল এফিশিয়েন্সি। এর কণ গিয়ার নেই তবে এর আছে  V টেক অটোমেটিক ট্রান্সমিশন।

yamaha aerox 155

এর ইঞ্জিনে আছে VVA (Variable Valve Actuation)  টেকনোলজি যা বেশি আর.পি.এম. এফিশিয়েন্সিতে সহায়তা করে। এই ইঞ্জিনে আরও ব্যাবহার হয়েছে forged piston & DiAsail cylinder  যা খুবই শক্তিশালী ম্যাটেরিয়াল দিয়ে তৈরি তবে ওজনে খুবই হালকা, যা এর ইঞ্জিনের কাছ থেকে সব্বোর্চ পার্ফমেন্সের এবং রিলায়েবিলিটি পেতে সাহায্য করে।

>>Yamaha Aerox 155 Specification, Price In Bangladesh, Showroom<<

এই স্কুটার এর ওজন হচ্ছে ১১৮ কেজি এবং এর ফুয়েল ট্যাঙ্ক এ ৫ লিটার ফুয়েল ধরে। এই স্কুটার এ আছে ৫.৮ ইঞ্চি LCD ডিসপ্লে স্পিডোমিটার। এর স্পিডোমিটারটি সম্পূর্ন ডিজাটাল। এর সেফটি ফিচার গুলোর মধ্যে আছে স্মার্ট লক সিস্টেম যা বাম ব্রেকে অবস্তিত এবং সাইড স্ট্যান্ড ইন্ডিকেটর।

aerox 155cc speedometer price bd

এই স্কুটার এর আছে স্পোর্টি LED হেডলাইট এবং টেল লাইট। এর সামনের ইন্ডিকেটর এর বডি এর সাথে যুক্ত এবং এর পিছনের ইন্ডিকেটর টি ব্যাবহার করা হয়েছে Yamaha R15 V3 এর ইন্ডিকেটর। এর সিটের নিচে আছে ২৫ লিটার স্টোরেজ ক্যাপাসিটি যাতে খুব সহজেই হেলমেট এবং অন্যান্য দরকারি জিনিসপত্র রাখা যায়। এর সামনের সাসপেনশন টেলিস্কোপিক এবং পিছনের সাসপেনশন হচ্ছে সুইং ইউনিট।

Yamaha Aerox 155 এ আছে ইলেকট্রিক পাওয়ার সকেট যাতে করে আপনি আপনার ফোন চার্জ করতে পারবেন, স্মার্ট key সিস্টেম যাতে করে স্কুটারটিকে keyless স্ট্যার্ট দেয়া যায়, স্ট্যার্ট এবং স্টপ সিস্টেম যাতে করে ট্রাফিক জ্যামের ভিতরে ফুয়েল সেভ হয়, পিছনের চাকায় ১৪০ মিঃ মিঃ টিউবলেস টায়ার ভাল স্ট্যাবিলিটির এবং সেফটির জন্য। এর সবচেয়ে আকর্ষনীয় দিক হচ্ছে এর সামনের চাকায় ব্যাবহার করা হয়েছে ABS( Anti-Lock Breaking System) সিস্টেম ভাল ব্রেকিং এর জন্য তবে এর পিছনের চাকায় ব্যাবহার করে হয়েছে কনভেনশনাল ড্রাম ব্রেকিং সিস্টেম।

 

yamaha aerox with abs

যেহেতু আমরা এই স্কুটারটি টেস্ট করিনি তাই আমরা এর মাইলেজ বা পার্ফমেন্সের এর ব্যাপারে সঠিক কিছু বলতে পারছিনা তবে আমরা এটা বলতে পারি যে বাংলাদেশে Yamaha Aerox 155 স্কুটার এর মুল্য ধরা হয়েছে ৩,৮০,০০০ টাকা।

মপড বা স্কুটার থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া এবং ভিয়েতনামের মত দেশে খুবই জনপ্রিয়। ইন্ডিয়াতে গত ৩ বছরের সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া দুই চাকার বাহন ছিল Honda Activa স্কুটার.  আমরা অনুমান করছি যে ২০১৯ সালে বাংলাদেশে স্কুটার খুবই জনপ্রিয় হবে যখন মোটরসাইকেল ও স্কুটার এর মুল্য আরও কমবে। আমরা আশা করছি যে খুব শ্রিঘ্রই বাংলাদেশে Yamaha Aerox 155 এর মত আরও অনেক এক্সক্লুসিভ স্কুটার আসবে।

--

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*