Yamaha Saluto ফিচার রিভিউ – টীম বাইকবিডি

নতুন Yamaha Saluto  ইয়ামাহা বাংলাদেশ এর লেটেস্ট ১২৫ সিসি কমিউটার বাইক। ইয়ামাহা এর বক্তব্য অনুযায়ী, ইয়ামাহা সালুতো বর্তমানে ১২৫ সিসি সেগমেন্টে অন্যতম ইকোনমিক্যাল এবং বাস্তববাদী মোটরসাইকেল। সবাইকে বাইকটির সকল ফিচার সম্পর্কে জানাতে আজ আমরা উপস্থিত হয়েছি Yamaha Saluto এর ফিচার রিভিউ নিয়ে। Yamaha Saluto ওভারভিউ কমিউটার মোটরসাইকেল এর সেগমেন্টগুলোর মধ্যে ১২৫ সিসি সেগমেন্টকে অন্যতম শক্তিশালি সেগমেন্ট হিসেবে ধরা হয়। এই সেগমেন্ট এর ব্যবহারকারীরা মূলত কমিউটিং করেন, তবে এর পাশাপাশি তাদের শক্তি এবং অবশ্যই রুচিসম্মত স্টাইলিং এর প্রয়োজন হয়। এসকল কারনেই ১২৫ সিসি সেগমেন্ট ক্রেতার চাহিদা পূরন করার জন্য অন্যতম চ্যালেঞ্জিং সেগমেন্ট। Yamaha Motorcycles এই চ্যালেঞ্জকে সামনে রেখেই Yamaha Saluto বাইকটিকে…

Review Overview

User Rating: 3.32 ( 3 votes)

নতুন Yamaha Saluto  ইয়ামাহা বাংলাদেশ এর লেটেস্ট ১২৫ সিসি কমিউটার বাইক। ইয়ামাহা এর বক্তব্য অনুযায়ী, ইয়ামাহা সালুতো বর্তমানে ১২৫ সিসি সেগমেন্টে অন্যতম ইকোনমিক্যাল এবং বাস্তববাদী মোটরসাইকেল। সবাইকে বাইকটির সকল ফিচার সম্পর্কে জানাতে আজ আমরা উপস্থিত হয়েছি Yamaha Saluto এর ফিচার রিভিউ নিয়ে।

yamaha saluto

Yamaha Saluto ওভারভিউ

কমিউটার মোটরসাইকেল এর সেগমেন্টগুলোর মধ্যে ১২৫ সিসি সেগমেন্টকে অন্যতম শক্তিশালি সেগমেন্ট হিসেবে ধরা হয়। এই সেগমেন্ট এর ব্যবহারকারীরা মূলত কমিউটিং করেন, তবে এর পাশাপাশি তাদের শক্তি এবং অবশ্যই রুচিসম্মত স্টাইলিং এর প্রয়োজন হয়।

এসকল কারনেই ১২৫ সিসি সেগমেন্ট ক্রেতার চাহিদা পূরন করার জন্য অন্যতম চ্যালেঞ্জিং সেগমেন্ট। Yamaha Motorcycles এই চ্যালেঞ্জকে সামনে রেখেই Yamaha Saluto বাইকটিকে ডেভেলপ করেছে। ইয়ামাহা সালুতো বাইকটি পাওয়ার, স্টাইলিং, এবং ফুয়েল এফিশিয়েন্সি এর একটি যথাযথ কম্বিনেশন।

Yamaha Saluto এর লেটেস্ট বিক্রয়মূল্য দেখতে এখানে ক্লিক করুন 

yamaha saluto top speed

ইয়ামাহা সালুতো ডিজাইন এবং স্টাইল

ডিজাইন  এবং স্টাইল এর দিক দিয়ে ইয়ামাহা সালুতো ১২৫ যথেষ্ট ক্লাসি । এটার সিম্পল এবং স্লীক ডিজাইন যেকোন কর্পোরেট বাইকার এর সাথে সম্পূর্ন মানিয়ে যায়। বর্তমানে মোটরসাইকেল কেবলমাত্র একটি বাহন নয়, বরং ব্যবহারকারীর ইউনিফর্ম হিসেবে কাজ করে এবং সেদিক দিয়ে Yamaha Saluto  একটি অত্যান্ত মানসম্মত ইউনিফর্ম। এর স্টাইলিং এবং ডিজাইন যেকোন বয়সের ব্যবহারকারীর সাথে মানিয়ে যায় ।

Yamaha Saluto একটি আধুনিক ডিজাইনের বাইক যার সারাদেহে চকচকে এবং তীক্ষ্ণ ডিজাইন রয়েছে। এর সবচাইতে আকর্ষনীয় অংশগুলো হচ্ছে এর হেডল্যাম্প, ফুয়েল ট্যাংক, এবং এর টেইল প্যানেল ।

yamaha saluto review

Yamaha Saluto এর হেডলাইটটি নতুন তীক্ষ্ণ আকারের প্লাস্টিক প্যানেল দ্বারা ডিজাইন করা হয়েছে। হীরক আকারের হেডলাইটটি হেডোল্যাম্পের ঠিক উপরের দিকে সেট করা হয়েছে যা একে একটি ভিন্নরকম চেহারা দেয়। এর এনালগ স্পীডোমিটার বেশ উন্নতমানের প্লাস্টিক দিয়ে ডিজাইন করা হয়েছে এবং এর সামনে উইন্ডস্ক্রীন পর্যন্ত বেশ ভালো পরিমানে ফাকা জায়গা রাখা হয়েছে।

ইয়ামাহা সালুতো এর ফুয়েল ট্যাংকটিকেও শার্প প্লাস্টিকের প্যানেল দিয়ে ডিজাইন করা হয়েছে। ভেতরে ফুয়েল ট্যাংকটি সম্পূর্ন ধাতুর তৈরী।

বাইকের পেছনের অংশ সুন্দর একটি কার্ভসহ গিয়ে টেইলল্যাম্পে মিশেছে। এর নন-স্প্লিট সিট রাইডার এবং পাইলিয়নের আরামের জন্য যথেষ্ট বড় এবং আধুনিক শেপে ডিজাইন করা। সিটের পাশে গ্র্যাবরেইলটি মেটাল এর তৈরী। এছাড়াও এটা বাইকের কার্ভড ডিজাইনের সাথে পুরোপুরি মিশে গেছে।

yamaha saluto 125 price in bangladesh

Yamaha Saluto এর ফিচারসমূহ

ইয়ামাহা সালুতো বাইকটিকে ডিজাইন করা হয়েছে কমিউটার ফিচারসমৃদ্ধ একটি শক্তিশালি প্যাকেজ হিসেবে। এর ১২৫ সিসি প্রতিযোগীদের পাশাপাশি এরও বেশকিছু আকর্ষনীয় দিক রয়েছে। এসকল ফিচারগুলো ইয়ামাহা সালুতোকে এমন এক অবস্থানে পৌছে দেয় যাতে ক্রেতারা চাইলেও বাইকটিকে অগ্রাহ্য করতে পারেন না।

১২৫ সিসি ব্লু-কোর ইঞ্জিন

ইয়ামাহা সালুতোর ইঞ্জিন একটি ১২৫ সিসি এয়ার কুলড ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিনটি ইয়ামাহার নিজস্ব ব্লু-কোর টেকনোলজিতে তৈরী করা। এবং এর ফলে এটা ভাইব্রেশনবিহীন ও স্মুথভাবে পারফর্ম করে। Yamaha Saluto এর এয়ার কুলড SOHC ইঞ্জিন ৮.৩ পিএস শক্তি উতপন্ন করতে পারে। এর অন্যতম অভাবনীয় বিষয় হচ্ছে, ইয়ামাহা এর ভাষ্যমতে বাইকটি টেস্ট কন্ডিশনে ৭৮ কেএমপিএল পর্যন্ত মাইলেজ দেবে।

হালকা ওজন

ইয়ামাহা সালুতো এর আরেকটি মূল ফিচার হচ্ছে এর হালকা ওজন। বর্তমানে আমাদের দেশে এই সেগমেন্টে ইয়ামাহা সালুতোই সবচাইতে হালকা বাইক। আমরা সবাই জানি যে হালকা ওজন বাইকের হ্যান্ডলিং এবং মাইলেজে অনেক প্রভাব ফেলে। মাত্র ১১২ কিলোগ্রাম ওজনসম্পন্ন হওয়ায় ইয়ামাহা সালুতো এর রাইডিং এবং কন্ট্রোলিং সেগমেন্ট এর অন্যান্য বাইকের চাইতে অনেকগুনেই এগিয়ে।

অধিক গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স

ইয়ামাহা সালুতোতে ১৮০ মিলিমিটারের গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স রয়েছে যা যেকোন প্রকারের রাস্তায় কমিউটিং করার জন্য যথেষ্ট। এবং এই অধিক গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স এর ফলে এটা রুক্ষ সারফেস এবং স্পীড ব্রেকারের মধ্য দিয়ে খুব সহজেই চলতে পারবে।

yamaha saluto 125 feature

উন্নত সাসপেনশন

Yamaha Saluto এর উভয় সাসপেনশনই অত্যান্ত উন্নতমানের। এগুলো যেকোনপ্রকারের রাস্তার সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সক্ষম।

আরামদায়ক প্রশস্ত সিট

ইয়ামাহা সালুতো বাইকে রয়েছে ৬৮০ মিলিমিটার লম্বা আরামদায়ক সিট। সিটটি  রাইডার এবং পাইলিয়নের আরামের জন্য হিসেবমতো কার্ভড করা। এটা সম্পূর্ন বাইকের সাথে অত্যান্ত মানানসই এবং পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বেড়ানোর জন্যও যথেষ্ট বড়।

এলয় রিম এবং টিউবলেস টায়ার

ইয়ামাহা সালুতো এর উভয় চাকাতেই এলয় রিম রয়েছে। উভয় টায়ারই টিউবলেস। তাই, রাস্তায় এর আচমকা ফ্ল্যাট হয়ে যাবার কোন সম্ভাবনা নেই। ইয়ামাহা সালুতো দুটি ভিন্ন ব্রেকিং অপশন সম্পন্ন । পেছনে একই ড্রামব্রেক সম্পন্ন বাইকটি সামনে ড্রাম ব্রেক অথবা ডিস্ক ব্রেক – দুটি অপশনে পাওয়া যাবে।

শাড়ি গার্ড

Yamaha Saluto ডিজাইন করা হয়েছে রাইডারের পারিবারিক সকল প্রয়োজন মাথায় রেখে, তাই বাইকটিতে একটি উন্নমানের ও সুন্দর ডিজাইনের শাড়ি গার্ড রয়েছে। শাড়ি গার্ডটি দেখতে সুন্দর, ওজনে হালকা, এবং শক্তিশালি। এছাড়াও এর বামপাশে একটি বড় আকারের ফুটরেস্ট দেয়া হয়েছে যাতে করে যেসকল নারী পাইলিয়ন দুই পা একই দিকে অর্থাৎ বামদিকে দিয়ে বসেন তাদের পা রাখতে কোনপ্রকার অসুবিধা না হয়।

ইলেকট্রিক স্টার্ট

একটি স্মার্ট কমিউটার বাইক হওয়াতে ইয়ামাহা সালুতো ইলেকট্রিক স্টার্টিং সিস্টেম সমৃদ্ধ। এছাড়াও এতে কিকস্টার্ট দেয়া হয়েছে যাতে যেকোন প্রকারের আবহাওয়াতেও বাইক স্টার্ট দিতে কোনপ্রকার সময়সা না হয়।

yamaha saluto 125 specification

Yamaha Saluto ইঞ্জিন এবং স্পেসিফিকেশন

ইতিমধ্যেই আমরা ইয়ামাহা সালুতো এর প্রায় সকল সকল ফিচার সম্পর্কে আলোচনা করেছি, এবার চলুন বাইকটির সম্পূর্ন স্পেসিফিকেশন দেখে নেয়া যাক।

স্পেসিফিকেশন Yamaha Saluto
ইঞ্জিন সিঙ্গেল সিলিন্ডার, ফোর স্ট্রোক, এয়ার কুলড, SOHC, দুই ভালভবিশিষ্ট ইঞ্জিন।
ডিসপ্লেসমেন্ট ১২৫ সিসি
বোর x স্ট্রোক ৫২.৪ মিমি x ৫৭.৯ মিমি
কমপ্রেশন রেশিও ১০.০ঃ১
ম্যাক্সিমাম পাওয়ার ৮.৩ পিএস @ ৭০০০ আরপিএম
ম্যাক্সিমাম টর্ক ১০.১ এনএম @ ৪৫০০ আরপিএম
ফুয়েল সাপ্লাই কার্বুরেটর
ইগনিশন সিডিআই
স্টার্টিং মেথড ইলেকট্রিক স্টার্ট এবং কিক স্টার্ট
ক্লাচ টাইপ ওয়েট, মাল্টিপ্লেট ডিস্ক
লুব্রিকেশন ওয়েট সাম্প
ট্রান্সমিশন কনস্ট্যান্ট মেশ, ৪-স্পীড
ফ্রেম টাইপ ডায়মন্ড
ডাইমেনশন (LxWxH) ২০৩৫মিমিx ৭০০মিমিx ১০৮০মিমি
হুইলবেজ ১২৬৫ মিমি
গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স ১৮০ মিমি
স্যাডোল হাইট ৮০৫ মিমি
ওয়েইট ১১২ কেজি (সম্পূর্ন ফুল ফুয়েল ট্যাংকসহ)
ফুয়েল ক্যাপাসিটি ৭.৬ লিটার
সাসপেনশন (ফ্রন্ট/রিয়ার) টেলিস্কোপিক ফর্ক / স্প্রিং লোডেড সুইংআর্ম ডাবল
ব্রেক সিস্টেম (ফ্রন্ট/রিয়ার) ফ্রন্টঃ ডিস্ক/ড্রাম; রিয়ারঃ ড্রাম
টায়ার সাইজ (ফ্রন্ট/রিয়ার) ফ্রন্টঃ ৮০/১০০-১৮ ৪৭পি; ৮০/১০০-১৮ ৫৪পি; টিউবলেস টায়ারস
ব্যাটারী ১২ভি, ৫.০এএইচ
হেডল্যাম্প হ্যালোজেন বাল্ব ১২ভি, ৩৫/৩৫ ডব্লিউ
স্পীডোমিটার অল এনালগ
ফুয়েল এফিশিয়েন্সি ৭৬ কিমি/লিটার (টেস্ট কন্ডিশনে)

*সকল স্পেসিফিকেশন, পলিসি, অফার এবং প্রোমোশন কোম্পানির উপর নির্ভরশীল। যেকোন পরিবর্তনের জন্য বাইকবিডি দায়ী নয়।

yamaha saluto 125 mileage

Yamaha Saluto – উপসংহার

আমরা মনে করি আমাদের এই Yamaha Saluto  ফিচার রিভিউ এর মাধ্যমে আমরা বাইকটি সম্পর্কে আরো বেশি পরিষ্কার ধারনা দিতে সক্ষম হয়েছি। আশা করা যায় আমাদের এই ফিচার রিভিউ সকলকে বাইকটি সম্পর্কে জানতে সহায়তা করবে।

About আহমেদ স্বজন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Sign up to our newsletter!


error: সকল লেখা সুরক্ষিত !!